সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ৩০

Send
সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২১:২৫, অক্টোবর ১৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:০১, অক্টোবর ১৭, ২০২০

সুনামগঞ্জসুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার ভাটিপাড়া ইউনিয়নের মথুরাপুর গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে একজন নিহত ও অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছেন। শনিবার (১৭ অক্টোবর) সকাল ৭টা থেকে ১০টা পর্যন্ত তিন ঘণ্টাব্যাপী  সংঘর্ষে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে।

খবর পেয়ে আশপাশের গ্রামের লোকজন ও পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ফের সংঘর্ষের আশঙ্কায় মধুরাপুর বাজার ও গ্রামে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ের করা হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে ওই গ্রাম থেকে ১২ জনকে আটক করেছে পুলিশ। দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মধুরাপুর গ্রামের নুর জালাল ও দিল হকের লোকজনের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে জমিজমাসহ নানা বিষয়ে বিরোধ চলে আসছিল। গ্রামের দুই পক্ষের মধ্যে বেশ কিছুদিন ধরে উত্তেজনা বিরাজ করছিল। উভয়পক্ষের মধ্যে মামলা-মোকদ্দমা চলমান রয়েছে। সেই বিরোধের জের ধরে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে শনিবার সকাল ৭টায় প্রথমে মথুরাপুর বাজারে পরে গ্রামে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। প্রতিপক্ষের আঘাতে নিহত হন নুর জালালের ছোট ভাই নুর মোহাম্মদ (৪৫)। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছেন। আহতদের দিরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মধুরাপুর গ্রামের বাসিন্দা সাবেক ইউপি সদস্য আইয়ুব খান বলেন,‘দুই পক্ষের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে মামলা-মোকদ্দমা চলছে। বিরোধের জের ধরেই দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে।’

দিরাই থানার ওসি আশরাফুল ইসলাম বলেন,‘ দুই পক্ষের মধ্যে জমি, জলমহালসহ নানা বিরোধ রয়েছে। সেই বিরোধের জের ধরেই  সংঘর্ষ হয়েছে। সংঘর্ষে একজন নিহত ও কয়েকজন আহত হয়েছেন। গ্রামে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।’

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) হায়াতুন নবী জানান, দিরাইয়ের মথুরাপুরের সংঘর্ষে হতাহতের ঘটনায় ১২ জনকে আটক করা হয়েছে।

 

/এপিএইচ/

লাইভ

টপ