কিশোরীর হাত-পা বাঁধা মরদেহ উদ্ধার

Send
শরীয়তপুর প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২১:৪৪, অক্টোবর ২২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:৪৬, অক্টোবর ২২, ২০২০

লাশ উদ্ধার

শরীয়তপুর জেলার ডামুড্যায় হাত, পা ও মুখ বাঁধা অবস্থায় কাজল আক্তার (১৫) নামে এক কিশোরীর (১৫) মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) সকালে বাড়ি সংলগ্ন একটি খাল থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে ডামুড্যা থানা পুলিশ। নিহত কাজল ডামুড্যা পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ডের মুরগী ব্যবসায়ী আলাউদ্দিন ছৈয়ালের মেয়ে।

ডামুড্যা থানা পুলিশ ও নিহতের পরিবার জানায়, বুধবার রাতে পাশের বাড়িতে টিভি দেখার কথা বলে কাজল ঘর থেকে বের হয়। কিন্তু অনেক রাত হয়ে গেলেও ঘরে ফিরে না আসায় কাজলকে খুঁজতে বের হয় পরিবারের লোকজন। কিন্তু সারারাত খুঁজেও আশেপাশে কোথাও তাকে পাওয়া যায়নি।

সকালে বাড়ির পাশে খালের ভেতর একটি লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। উদ্ধারের সময় কাজলের হাত,পা ও মুখ বাঁধা অবস্থায় ছিলো। পরে পরিবারের সদস্যরা গিয়ে লাশটি কাজলের বলে শনাক্ত করে।

নিহত কাজলের বাবা আলাউদ্দিন ছৈয়াল বলেন, কারও সঙ্গে আমাদের কোনও শত্রুতা নেই। কারা, কী কারণে আমার নিরপরাধ মেয়েকে মেরে ফেললো বুঝতে পারছি না। তিনি এ ঘটনার তদন্তও খুনীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন।

ডামুড্যা থানার ওসি (তদন্ত) এমারত হোসেন বলেন, মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। মেয়েটির শরীরে বাহ্যিকভাবে আঘাতের কোনো চিহ্ন আমরা দেখতে পাইনি। এখন পর্যন্ত এ ঘটনায় কোনওে মামলা হয়নি। মামলার ভিত্তিতে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

/টিএন/

লাইভ

টপ