নির্যাতনের শিকার শিশু গৃহকর্মীর মৃত্যু

Send
শেরপুর প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০১:৫৮, অক্টোবর ২৪, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০২:০২, অক্টোবর ২৪, ২০২০

BT-Newশেরপুরের শ্রীবরদীতে নির্যাতনের শিকার শিশু গৃহকর্মী সাদিয়া পারভিন (১০) মারা গেছে। প্রায় একমাস চিকিৎসাধীন থাকার পর শুক্রবার (২৩ অক্টোবর) বিকাল ৫টার দিকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. জাহাঙ্গীর আলম মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।  

সাদিয়া উপজেলার মুন্সীপাড়া গ্রামের সাইফুল ইসলামের মেয়ে।

পুলিশ ও গৃহকর্মীর পরিবার সূত্র জানায়, গত প্রায় এক বছর যাবৎ শ্রীবরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব শাকিলের বাসায় গৃহকর্মী হিসেবে কাজ করে সাদিয়া। শাকিল শ্রীবরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আশরাফ হোসেন খোকার ছেলে। কাজে যোগদানের পর থেকে সদিয়াকে বিভিন্ন অজুহাতে শারীরিক নির্যাতন করতো শাকিলের স্ত্রী রুমানা জামান ঝুমুর। বিষয়টি জেনেও পরিবারের অন্য সদস্যরা কোনও ব্যবস্থা না নেওয়ায় দিন দিন বেড়ে যায় নির্যাতনের মাত্রা। তবে নির্যাতনে শিশু সাদিয়ার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে মাঝে-মধ্যে জেলা ও উপজেলা হাসপাতালে চিকিৎসা করাতেন। সবশেষ গত ২৬ সেপ্টেম্বর নির্যাতনের আঘাতে শিশুটির অবস্থার অবনতি হয়ে বেশি অসুস্থ হয়ে পড়ে। একপর্যায়ে সংবাদ পেয়ে পুলিশ রাত দেড়টার দিকে ওই বাসা থেকে তাকে উদ্ধার করে। প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, পরে শেরপুর সদর হাসপাতাল এবং সেখান থেকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয় সাদিয়াকে। প্রায় এক মাস চিকিৎসাধীন থাকার পর শুক্রবার বিকাল ৫টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

এদিকে, নির্যাতনের ঘটনায় গত ২৬ সেপ্টেম্বর সাদিয়ার বাবা সাইফুল ইসলাম বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। পুলিশ শাকিলের স্ত্রী ঝুমুরকে গ্রেফতার করে। বর্তমানে সে শেরপুর জেলহাজতে রয়েছে।

সন্তান হত্যার বিচার চেয়ে সাদিয়ার বাবা সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘আমার মেয়েকে হত্যায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।’

এ বিষয়ে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার জানান, এ ঘটনায় আইন অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

/এমএএ/

লাইভ

টপ