রাজাপুরে কলেজ ছাত্রের ওপর দুর্বৃত্তের হামলা

Send
ঝালকাঠি প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৭:৩৪, অক্টোবর ২৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:৩৫, অক্টোবর ২৭, ২০২০

 




হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহত নুরনবীঝালকাঠির রাজাপুরের বড়ইয়া ইউনিয়ন প্যানেল চেয়ারম্যান মো. তরিকুল ইসলাম মামুনের খালাতো ভাই কলেজ ছাত্র নুরনবীকে দেশীয় ধারালো রামদা দিয়ে কুপিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। মঙ্গলবার (২৭ অক্টোবর) ফজরের সময় উপজেলার উত্তমপুর এলাকায় প্যানেল চেয়ারম্যানের নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। নুরনবী বড়ইয়া এলাকার মো. ফারুক হাওলাদারের পুত্র ও বড়ইয়া ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।



প্যানেল চেয়ারম্যান মো. তরিকুল ইসলাম মামুন জানান, নুরনবী তাদের বাড়িতে থেকেই লেখা-পড়া করেন। ঘটনার দিন সোমবার দিবাগত রাতে বাড়ির মধ্যে লোকজনের আনাগোনা টের পায় মামুন। ফজরের নামাজ পড়তে পেছনের দরজা খুলে বাহিরে বের হয় মামুনের খালাতো ভাই নুরনবী। এ সময় আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা দুর্বৃত্তরা মামুন মনে করে হত্যার উদ্দেশ্য নুরনবীর মাথায় ধারালো রামদা দিয়ে কোপ দেয়। নুরনবী চিৎকার দিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে দুর্বৃত্তরা ঘটনাস্থল থেকে দ্রুত পালিয়ে যায়। নুরনবী কাউকে চিনতে না পারলেও তারা ১০-১২ জন ছিল বলে নিশ্চিত করে। পরিবারের লোকজন নুরনবীকে উদ্ধার করে রাজাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান।
তিনি আরও জানান, বড়ইয়ার চরপালট গুচ্ছগ্রামের অনিয়ম ও দুর্নীতির সংবাদ প্রচারে সাংবাদিকদের সহায়তা করেছিলেন। এরপর থেকেই ওই অনিয়ম ও দুর্নীতি সঙ্গে জড়িতরা তাকে বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে আসছিল। এমনকি হত্যার উদ্দেশ্যে প্রায় রাতেই তার বাড়িতে লোকজনের যাতায়াত লক্ষ করেন। এই হামলার ঘটনা তারাই ঘটিয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।
রাজাপুর অফিসার ইনচার্জ মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

/আরআইজে/

লাইভ

টপ