স্ত্রীর মৃত্যুতে হত্যা মামলা, বিষপানে স্বামীর আত্মহত্যা

Send
কুমিল্লা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২৩:৩৯, অক্টোবর ২৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:৫১, অক্টোবর ২৮, ২০২০




স্বামী হেলাল উদ্দিন ও স্ত্রী দিলোয়ারা আক্তার শিউলিস্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধারের দুইদিন পর স্বামীও আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে। বুধবার (২৮ অক্টোবর) দুপুরে চৌদ্দগ্রাম উপজেলার আলকরা ইউনিয়নের কুঞ্জশ্রীপুর গ্রামের নিজ বাড়িতে বিষপানে ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয় বলে জানা গেছে। হেলাল উদ্দিন কুঞ্জশ্রীপুর গ্রামের মৃত ছিদ্দিকুর রহমানের ছেলে।

এর আগে সোমবার (২৬ অক্টোবর) হেলালের স্ত্রী দিলোয়ারা আক্তার শিউলির ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় শিউলির পিতা বাদী হয়ে হেলালসহ চার জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ২/৩ জনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সোমবার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার কুঞ্জশ্রীপুর গ্রামের হেলাল উদ্দিনের স্ত্রী এক সন্তানের মা দিলোয়ারা আক্তার শিউলির ঝুলন্ত লাশ স্বামীর বসতঘর থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় শিউলির পিতা ফয়েজ আহাম্মদ স্বামী হেলাল উদ্দিনকে প্রধান ও ভাই-মা ও ভাবিসহ চার জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করেন। এরপর থেকে হেলাল উদ্দিনসহ পরিবারের লোকজন পালিয়ে যায়। মঙ্গলবার রাতে হেলালসহ তার পরিবারের লোকজন বাড়ি ফিরে আসেন। পরদিন বুধবার সকালে হেলাল উদ্দিন নিজ বাড়িতেই বিষপান করে অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরিবারের লোকজন বিষয়টি টের পেয়ে তাকে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।

অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ (কুমেক) হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা। কুমেকে নেওয়ার পথে মারা যান হেলাল।

চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক আবুল হাশেম সবুজ জানান, হেলাল উদ্দিনকে মুমূর্ষু অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। তার মুখে ও শরীরে বিষের অস্তিত্ব পাওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

চৌদ্দগ্রাম থানার উপপরিদর্শক মনির হোসেন বলেন, মৃত হেলাল উদ্দিন তার স্ত্রী শিউলীকে হত্যার অভিযোগে দায়েরকৃত মামলার প্রধান আসামি। সে বিষপান করলে পরিবারের সদস্যরা তাকে নিয়ে চৌদ্দগ্রাম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লায় নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

 

/টিটি/

লাইভ

টপ