X
শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
২০ মাঘ ১৪২৯

সড়কে প্রাণ গেলো ছাত্রলীগের ২ নেতার

নাটোর প্রতিনিধি
০৮ অক্টোবর ২০২২, ২৩:৩০আপডেট : ০৯ অক্টোবর ২০২২, ১১:৩২

সড়ক দুর্ঘটনায় নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতিসহ ছাত্রলীগের দুই নেতা নিহত এবং একজন সংকটাপন্ন অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন। শনিবার (৮ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৭টা থেকে সাড়ে ৭টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- নাজিরপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি সালাহউদ্দিন (২৯) এবং ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক নেতা ইশতিয়াক আহমেদ আশিক (২৭)।

গুরুদাসপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আতিয়ার রহমান বাঁধন জানান, ব্যক্তিগত কাজে মোটরসাইকেলে ওই তিন জন পাবনা থেকে কুষ্টিয়া যাচ্ছিলেন। পথে পাবনার ঈশ্বরদীর মুন্নার মোড়ে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা রাজশাহীগামী একটি বাসের সঙ্গে তাদের মোটরসাইকেলের সংঘর্ষ হয়। ঘটনাস্থলেই ইশতিয়াক আহমেদ মারা যান। পরে রাজশাহী নেওয়ার পথে বনপাড়া এলাকায় পৌঁছালে সালাহউদ্দিনের মৃত্যু হয়। এ ছাড়া রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে সংকটাপন্ন অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন আরেফিন।

তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় উপজেলা ছাত্রলীগ, নাজিরপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগ ও নিহতদের পরিবারে শোকের মাতম চলছে।

নিহত সালাহউদ্দিন নাজিরপুর ইউনিয়নের জুমাইনগর গ্রামের আহসান হাবিবের ছেলে, ইসতিয়াক আহমেদ আশিক বিয়াঘাট ইউনিয়নের মোল্লাবাজার এলাকার মো. শফিকুল ইসলামের ছেলে এবং আরেফিনের বাড়ি একই ইউনিয়নের রাণীনগর এলাকায়।

পাকশী হাইওয়ে থানার ওসি আশীষ কুমার স্যানাল জানান, ঘটনার তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে মৌসুমী পরিবহন নামে ওই বাসের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল সংলগ্ন রাজপাড়া থানার ওসি তদন্ত মাইদুল ইসলাম জানান, দুর্ঘটনাস্থলে একজনের মৃত্যু হয়েছে। হাসপাতালে আনার পথে আরেকজন মারা গেছে। আর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরও একজন মুমূর্ষু অবস্থায় রয়েছেন। 

/এফআর/এমএএ/
সর্বশেষ খবর
সিটে তোলেন প্রাধ্যক্ষ, নামায় ছাত্রলীগ
সিটে তোলেন প্রাধ্যক্ষ, নামায় ছাত্রলীগ
৪ মাস পর জামিনে মুক্তি পেয়েছেন সেই স্মৃতি
৪ মাস পর জামিনে মুক্তি পেয়েছেন সেই স্মৃতি
স্পিকারের সঙ্গে নর্ডিক রাষ্ট্রগুলোর রাষ্ট্রদূতদের সাক্ষাৎ
স্পিকারের সঙ্গে নর্ডিক রাষ্ট্রগুলোর রাষ্ট্রদূতদের সাক্ষাৎ
উপাচার্যের আশ্বাসে হলে ফিরে গেলেন অবস্থানরত শিক্ষার্থীরা
উপাচার্যের আশ্বাসে হলে ফিরে গেলেন অবস্থানরত শিক্ষার্থীরা
সর্বাধিক পঠিত
টিকিট কাটতে বলায় সন্তানকে বিমানবন্দরে রেখেই চলে যান দম্পতি!
টিকিট কাটতে বলায় সন্তানকে বিমানবন্দরে রেখেই চলে যান দম্পতি!
পিন নম্বর ছাড়াই সব কার্ডে লেনদেনের সুযোগ
পিন নম্বর ছাড়াই সব কার্ডে লেনদেনের সুযোগ
নির্বাচন অফিসে গিয়ে আপ্যায়ন চাইলেন হিরো আলম, পেলেন মিষ্টি
নির্বাচন অফিসে গিয়ে আপ্যায়ন চাইলেন হিরো আলম, পেলেন মিষ্টি
ইয়েমেনে যাচ্ছিল ইরানের বিপুল অস্ত্র-গোলাবারুদ, আটকালো ফ্রান্স-যুক্তরাষ্ট্র
ইয়েমেনে যাচ্ছিল ইরানের বিপুল অস্ত্র-গোলাবারুদ, আটকালো ফ্রান্স-যুক্তরাষ্ট্র
সাত পদে ১১৭ জনের সরকারি চাকরির সুযোগ
সাত পদে ১১৭ জনের সরকারি চাকরির সুযোগ