X
শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
২০ মাঘ ১৪২৯

শিশুকে হত্যায় ৫ জনের যাবজ্জীবন 

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি 
২২ নভেম্বর ২০২২, ১৮:৪৮আপডেট : ২২ নভেম্বর ২০২২, ১৮:৪৮

সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে ইমন (৬) নামে এক শিশুকে হত্যার দায়ে পাঁচ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে প্রত্যেককে ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক বছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়। মামলার অন্য দুই আসামিকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে।

একই মামলায় দণ্ডপ্রাপ্তদের পেনাল কোডের ২০১ ধারায় দুই বছরের কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ছয় মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। 

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- বেলকুচি উপজেলার চক মকিমপুর গ্রামের বাসিন্দা সোহেল, কাউছার, হীরন, আল আমিন ও ওসমান।

মঙ্গলবার (২২ নভেম্বর) দুপুরে সিরাজগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মোহাম্মদ এরফান উল্লাহ এ আদেশ দেন। রায় ঘোষণার সময় আসামিরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন। 

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট ওয়াজ করনী লকেট।
 
মামলা সূত্রে জানা যায়, বেলকুচি উপজেলার চর মকিমপুর এলাকার মালয়েশিয়া প্রবাসী মো. চাঁন মিয়া ও মোছা. মমতা খাতুনের সন্তান ইমন ২০২১ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি বিকালে নিখোঁজ হয়। এক সপ্তাহ পর ২২ ফেব্রুয়ারি দুপুরে মাইঝাইল গ্রামের একটি বাঁশঝাড় থেকে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় নিহত শিশুর চাচা সানোয়ার হোসেন বাদী হয়ে ওইদিন সাত জনকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেন। 

মামলার তদন্তকালে আসামি আল-আমিন ও মো. ওসমান সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। পুলিশ তদন্ত শেষে আসামিদের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।

সরকার পক্ষ এ মামলায় ১২ জনের সাক্ষ্য নেওয়া হয়। অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বিচারক পাঁচ আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন। মামলার বাকি দুই আসামি আলহাজ ও গোলামকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে।

 

/টিটি/
সর্বশেষ খবর
রাজশাহীতে ৩ জনকে হত্যা
রাজশাহীতে ৩ জনকে হত্যা
নার্সদের যৌন হয়রানি: দুই চিকিৎসককে বদলি
নার্সদের যৌন হয়রানি: দুই চিকিৎসককে বদলি
ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে আহত পার্বত্য মন্ত্রীর এপিএস
ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে আহত পার্বত্য মন্ত্রীর এপিএস
মধ্যরাতে জাবি উপাচার্যের বাসভবনের সামনে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ
মধ্যরাতে জাবি উপাচার্যের বাসভবনের সামনে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ
সর্বাধিক পঠিত
টিকিট কাটতে বলায় সন্তানকে বিমানবন্দরে রেখেই চলে যান দম্পতি!
টিকিট কাটতে বলায় সন্তানকে বিমানবন্দরে রেখেই চলে যান দম্পতি!
পিন নম্বর ছাড়াই সব কার্ডে লেনদেনের সুযোগ
পিন নম্বর ছাড়াই সব কার্ডে লেনদেনের সুযোগ
নির্বাচন অফিসে গিয়ে আপ্যায়ন চাইলেন হিরো আলম, পেলেন মিষ্টি
নির্বাচন অফিসে গিয়ে আপ্যায়ন চাইলেন হিরো আলম, পেলেন মিষ্টি
ইয়েমেনে যাচ্ছিল ইরানের বিপুল অস্ত্র-গোলাবারুদ, আটকালো ফ্রান্স-যুক্তরাষ্ট্র
ইয়েমেনে যাচ্ছিল ইরানের বিপুল অস্ত্র-গোলাবারুদ, আটকালো ফ্রান্স-যুক্তরাষ্ট্র
সাত পদে ১১৭ জনের সরকারি চাকরির সুযোগ
সাত পদে ১১৭ জনের সরকারি চাকরির সুযোগ