এক নম্বরে আরিয়ান, করলেন জ্যেষ্ঠ শিল্পীদের তালিকা

Send
সুধাময় সরকার
প্রকাশিত : ১৫:০১, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:৪৬, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০

মিজানুর রহমান আরিয়ানএই ভ্যালেন্টাইনে বেশ ক’টি আলোচিত নাটক উন্মুক্ত হয়েছে অন্তর্জালে। এগুলো প্রকাশের এক সপ্তাহ পেরিয়ে গেল। শুরু হলো ভিউ কিংবা সমালোচক বিচারে এগিয়ে থাকা কাজগুলোর হিসাব-নিকাশ।
এরমধ্যে প্রকাশের (১৪ ফেব্রুয়ারি) ৭ দিনের মাথায় ইউটিউবে এখন জনপ্রিয়তার শীর্ষে অবস্থান করছে মিজানুর রহমান আরিয়ানের নাটক ‘গজদন্তিনী’। নাটকটির ভিউ শনিবার দুপুর নাগাদ (২২ ফেব্রুয়ারি) ২৮ লাখের ঘর অতিক্রম করলো। যা এই ভ্যালেন্টাইনে উন্মুক্ত হওয়া নাটকগুলোর মধ্যে সবার শীর্ষে!
আফরান নিশো-মেহজাবীন চৌধুরী অভিনীত এই নাটকটির চিত্রনাট্য ও নির্মাণশৈলী নিয়েও রয়েছে সমালোচকদের উচ্ছ্বাস। অনেকেই বলছেন, এমন বুদ্ধিবৃত্তিক নির্মাণ অনেকদিন দেখা যাচ্ছিলো না, নাট্যাঙ্গনে।
এদিকে এমন সফলতায় খানিকটা বিস্মিত নির্মাতা আরিয়ানও। বাংলা ট্রিবিউনকে বললেন, ‘‘এই ভ্যালেন্টাইনে আমার চারটি কাজ। যার মধ্যে সবচেয়ে প্রিয় কাজ হলো ‘গজদন্তিনী’। সেটা আমি নির্মাণের সময়েই বলেছি নিকটজনদের। আমি বিস্মিত, কাজটির প্রতি সবার সমর্থন দেখে। আমি মনে করি, নাটকটির এই সফলতা ভালো চিত্রনাট্য আর নির্মাণের পথটাকে আরও সুগম করলো। এটাই বড় স্বস্তির জায়গা।’’
এদিকে ভিউ-এর বিচারে ‌‌‘গজদন্তিনী’র পেছনেই আছে কাজল আরিফিন অমির ‘স্যার আই লাভ ইউ’ (২৪ লাখ ৮১ হাজার)। এতেও অভিনয় করেছেন আফরান-মেহজাবীন। মহিদুল মহিমের নির্মাণে ‘ফ্যাশন’ আছে তৃতীয় স্থানে (২৪ লাখ ১১ হাজার)। এতে আছেন অপূর্ব-মেহজাবীন। অন্যদিকে এক সপ্তাহে ২০ লাখের ক্লাব পেরুনো নাটকের মধ্যে মহিদুল মহিমের আরেকটি নাটক ‘হদয় ভাঙ্গা ঢেউ’। এটির ভিউ ২২ লাখ ৩৭ হাজারের বেশি। অভিনয় করেছেন আফরান-মেহজাবীন।
এদিকে ২০ লাখের ক্লাবে ঢোকার জন্য শনিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) দুপুর নাগাদ ১৯ লাখ ৭৪ হাজার ভিউ নিয়ে অপেক্ষায় আছে মিজানুর রহমান আরিয়ানের আরেক নাটক ‘চারুর বিয়ে’। সিএমভি প্রযোজিত এই নাটকে অভিনয় করেছেন অপূর্ব-মেহজাবীন।
এই ভ্যালেন্টাইন উৎসবে মিজানুর রহমান এগিয়ে আছেন আরও একটি মাধ্যমে। অনেকেই লক্ষ্য করেছেন নিশ্চয়ই, এবার আরিয়ানের সবগুলো নাটকেই মূল পত্র-পাত্রীর বাইরে উঠে এসেছেন বেশ ক’জন জ্যেষ্ঠ তারকা অভিনয়শিল্পী। যাদেরকে সাম্প্রতিক সময়ের নাটকে সচরাচর দেখা যায় না। অথবা, তাদেরকে ভেবে তেমন কেউ আর চিত্রনাট্য সাজায় না। কিংবা মূল নায়ক-নায়িকা আর তাদের বন্ধু-বান্ধব দিয়েই শেষ করা হয় সমকালীন কাজগুলো!
ফলে চলচ্চিত্রের পথ ধরে টিভি নাটকেও চলছিলো জ্যেষ্ঠ চরিত্রাভিনেতাদের প্রতি অবহেলা কিংবা উপস্থাপনের অভাব। মূলত সেই অভাবটাই এবার পূরণ করতে চেয়েছেন আরিয়ান। এবার তিনি পর্দায় ডেকে নিয়েছেন সমু চৌধুরী, আল মামুন, আজিজুল হাকিম, মনিরা ইউসুফ মেমী, মনির খান শিমুলের মতো শিল্পীদের।
ভ্যালেন্টাইনে আরিয়ানের নাটকে দেখা গেছে এই জ্যেষ্ঠ শিল্পীদের  বিষয়টি সামনে আনলে আরিয়ান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘‘কিছুদিন আগে হঠাৎ করে আমার মনে হলো, পুরনো অনেক অভিনয়শিল্পীদের এখনকার নাটকে আর দেখা যায় না। আমি নিজেও উনাদের সেভাবে ডাকিনি। যাদের অভিনয় দেখে আমরা বড় হয়েছি, মুগ্ধ ছিলাম দীর্ঘ সময়। তখন আমার মাথায় এলো ‘ওল্ড ইজ গোল্ড’ কথাটি। সঙ্গে সঙ্গে মগজ থেকে কপি করে এমন ১০/১২ জন সিনিয়র শিল্পীর নামের তালিকা করলাম। সিদ্ধান্ত নিলাম, এই তালিকা ধরে আমি নিয়মিত উনাদের সঙ্গে কাজ করবো। যার শুরুটা করলাম ভ্যালেন্টাইনের প্রজেক্ট থেকে।’’
জ্যেষ্ঠ শিল্পীদের সঙ্গে কাজ করার অভিজ্ঞতা প্রসঙ্গে আরিয়ান আরও বলেন, ‘বিশ্বাস করবেন না, এই মানুষগুলো কী পরিমাণ সিরিয়াস আর ডিসেন্ট অভিনয়ের প্রতি। উনাদের সঙ্গে কাজ করা মানে অনেক কিছু শেখা। শেখার তো শেষ নেই। আমি শিখতেই চাই।’
এদিকে ভ্যালেন্টাইন ব্যস্ততা সামলে এরমধ্যেই মাঠে নেমেছেন ছোট পর্দার এই বড় নির্মাতা। চলছে পহেলা বৈশাখ আর ঈদের প্রজেক্ট। এরমধ্যে কয়েকটি কাজের শিরোনাম এমন- ‘উপহার’, ‘প্রশ্নোত্তর’, ‘কেমন আছে ফ্রিল্যান্সার নাদিয়া?’, ‘My Wife’s Love Story’ ও ‘স্যালুট’।
চলছে বছরের শেষ নাগাদ একটি পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণের নীরব প্রক্রিয়াও। যদিও এ বিষয়ে এখনই কিছু বলতে নারাজ, রহমান পরিবারের ‘বড় ছেলে’ আরিয়ান!

/এমএম/

লাইভ

টপ