লাইভে এসে গান শোনালেন চঞ্চল চৌধুরী ও নুসরাত ফারিয়া

Send
বিনোদন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৮:২৮, এপ্রিল ০৪, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৩৫, এপ্রিল ০৪, ২০২০

চঞ্চল চৌধুরীকে বলা হয় সফল সিনেমার বরপুত্র। তার সিনেমা মানে সংখ্যায় কম, সফলতায় বিস্তর। অভিনয়ের বাইরে তিনি একজন ভালো কণ্ঠশিল্পীও বটে। যার প্রমাণ তার ভক্তরা নানাভাবে পেয়েছেন। অন্যদিকে দুই বাংলার অন্যতম চলচ্চিত্র মুখ নুসরাত ফারিয়া। বছর দুই আগে ‌‘পটাকা’ শিরোনামের গান গেয়ে যিনি তুমুল আলোচনায় ওঠেন। প্রায় দুই বছর পর আবারও এই নায়িকা গায়িকারূপে হাজির হতে প্রস্তুত। শুটিং-রেকর্ডিং শেষ, অপেক্ষা শুধু চলমান করোনাকাল অতিক্রমের।

লাইভে চঞ্চল চৌধুরী ও নুসরাত ফারিয়াদেশের অন্যতম এই দুই তারকা এবার এক প্ল্যাটফর্মে যুক্ত হয়ে দর্শকদের শোনালেন গান। চঞ্চল চৌধুরী কণ্ঠে নিলেন ভুপেন হাজারিকাকে আর ফারিয়া গাইলেন রুনা লায়লার গান। স্বাভাবিক, দুজনেই মুগ্ধ করলেন দর্শকদের। মুগ্ধতার রেশ ছড়িয়ে দিলেন তাদের সঙ্গে যুক্ত থাকা সংগীত তারকাদেরও।

ভিন্ন ধারার এ ঘটনাটি ঘটেছে ৩ এপ্রিল রাতে সংগীতশিল্পী কৌশিক হোসেন তাপসের উদ্যোগ ও সঞ্চালনায় ফেসবুকভিত্তিক ‘মিউজিক ফর পিস-এফবি লাইভ’ আয়োজনে।
গান-কথায় সামাজিক সচেতনতা তৈরির লক্ষ্য নিয়ে চলমান করোনাকালে গানবাংলা টেলিভিশনের নিয়মিত আয়োজন এটি। রাত ৯টা থেকে ১১টা পর্যন্ত চলে এই লাইভ অনুষ্ঠান।
৩ মার্চ এ আয়োজনে চঞ্চল চৌধুরী ও নুসরাত ফারিয়া ছাড়াও উপস্থিত হন ভারতের কণ্ঠশিল্পী অদিতি সিং শর্মা, ঢাকার অভিনেত্রী শাহতাজ, সংগীতশিল্পী আরফিন রুমি ও প্রতীক হাসান।
কৌশিক হোসেন তাপসের সঞ্চালনায় প্রাণবন্ত এ অনুষ্ঠানে গান ও কথায় করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট দুর্যোগে সবার প্রতি সচেতনতার বার্তা পৌঁছে দেওয়ার পাশাপাশি বিপদগ্রস্তদের প্রতি মানবিক হওয়ার আবেদন জানান শিল্পীরা।
কথার ফাঁকে ফাঁকে গান পরিবেশন করেন প্রত্যেক শিল্পীই। ‘মানুষ মানুষের জন্য’, ‘বকুল ফুল বকুল ফুল’সহ এমন বেশ কিছু গান শোনান চঞ্চল চৌধুরী। বলেন, ‘মানুষ তুমি মানুষ হও, প্রাণী হয়ে থেকো না। পৃথিবীব্যাপী অনেক মানুষ মারা যাচ্ছে, করোনায় আক্রান্ত হয়ে। একটা সময় এই বিপদটা হয়তো থাকবে না। আমরা আশা করছি খুব শিগগিরই এই দুঃসময় কেটে যাবে, তখন যেন আমরা মানুষ হই। না হলে এর চেয়েও বড় কোনও দুর্যোগ এসে পৃথিবীটা ধ্বংস হয়ে যাবে।’
অন্যদিকে সবার প্রতি আত্মসচেতনতার পাশাপাশি সমাজের বিপদগ্রস্ত মানুষের প্রতি সবার মানবিক হওয়ার আহ্বান জানান নুসরাত ফারিয়া। জানান, করোনা দুর্যোগ সৃষ্টি না হলে মার্চেই আসতো তার দ্বিতীয় গান। তবে নতুন গানটি না শুনালেও এই নায়িকা খালি গলায় তুলে নেন রুনা লায়লার একটি বিখ্যাত গান। ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ ছবির এই গানটির নাম ‘এখন তো সময় ভালোবাসার’। গানটি গাওয়ার পর ফারিয়ার কণ্ঠের দারুণ প্রশংসা করেন সঞ্চালক-সংগীত পরিচালক কৌশিক হোসেন তাপসসহ অন্য অতিথিরা।

অন্যদিকে ভারতের অদিতি সিং শর্মা গেয়ে শোনান গানবাংলার ‘উইন্ড অব চেঞ্জ’ অনুষ্ঠানে তার গাওয়া লাকী আখন্দের ‘আমায় ডেকো না’ গানটি। এছাড়াও ভারতীয় চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় এ প্লেব্যাক সিঙ্গারের কণ্ঠে শোনা যায়, হিন্দি, ইংলিশ ও রাশান গানের বিভিন্ন অংশও।
তিনি বলেন, ‘সাধারণত মানুষ ঘরেই থাকতে চায়, অলস দিন কাটায়। কিন্তু যেই না নিষেধাজ্ঞা এলো, অনেকেরই মনে হচ্ছে কেন ঘরে থাকবো! ঘরে থেকেও আমি দারুণ ব্যস্ত সময় পার করছি। অনেক কিছুই করার আছে। পৃথিবীকে রক্ষা করতে অনেকেই অনেক কিছু করছেন। যদি ঘরে থেকেই আমরা তাতে ভূমিকা রাখতে পারি, কেন নয়? প্রকৃতির প্রতি আমরা যে অত্যাচার করেছি, তারই প্রতিদান ফিরে আসছে আমাদের ওপর।’
কৌশিক হোসেন তাপস জানান, জাতিসংঘের সহায়ক সংস্থা ইউএনডিপি ও দেশের বৃহত্তর মোবাইল নেটওয়ার্ক কোম্পানি রবি নেটওয়ার্কের সহযোগিতায় আয়োজিত অনুষ্ঠানটি প্রতিদিন উপভোগ করছেন প্রায় পৌনে দুই কোটি দর্শক। অনুষ্ঠানটিতে ইতোমধ্যে অংশ নিয়েছেন প্রায় শতাধিক দেশীয় ও আন্তর্জাতিক তারকাশিল্পী।
আজ, ৪ মার্চ এ আয়োজনে অতিথি হয়ে উপস্থিত থাকছে ব্যান্ড চিরকুট, সংগীতশিল্পী মিলা, মিনার রহমানসহ অনেকেই।
গানবাংলার ফেসবুক পেইজ থেকে পুরো আয়োজনটির সম্প্রচার সমন্বয় করছেন সংগীতশিল্পী জুয়েল মোর্শেদ।

/এমএম/এমওএফ/

লাইভ

টপ