মোদি-শচীন থেকে লতা-অমিতাভ, ইরফানের জন্য শোকার্ত সবাই

Send
বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত : ০১:১৮, এপ্রিল ৩০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:০৬, এপ্রিল ৩০, ২০২০

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ছেয়ে গেছে বিষাদে। অভিনেতা ইরফান খানের মৃত্যুতে বিমর্ষ হয়েছেন ভারতের প্রেসিডেন্ট-প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে তারকা ও ভক্তরা। এমন কেউ নেই যার চোখে অশ্রু জমেনি। শোকার্ত মানুষের প্রতিধ্বনি ছড়িয়ে পড়েছে টুইটারসহ সোশ্যাল মিডিয়ার নানা মাধ্যমে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি টুইটে লিখেছেন, ‘ইরফান খানের প্রয়াণে চলচ্চিত্র ও থিয়েটার জগতের ক্ষতি হলো। সংস্কৃতির বিভিন্ন শাখায় বহুমুখী অভিনয়ের জন্য তিনি অমর হয়ে থাকবেন। তার পরিবার, বন্ধু ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের প্রতি সমবেদনা জানাই।’
কিংবদন্তি কণ্ঠশিল্পী লতা মঙ্গেশকর টুইটে বলেন, ‘অনেক গুণী অভিনেতা ইরফান খানের মৃত্যুর খবর শুনে খুব দুঃখ পেয়েছি। তার প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করছি।’
দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল টুইটারে লিখেছেন, ‘ইরফান খানের মৃত্যুর খবর শুনে আমি মর্মাহত। আমাদের সময়ের অন্যতম অসাধারণ অভিনেতা ছিলেন তিনি। তার কাজ চিরকাল স্মরণীয় হয়ে থাকবে।’
কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী বলেন, ‘ইরফান খানের মৃত্যুর খবর শুনে কষ্ট লেগেছে। তিনি ছিলেন বহুমুখী ও প্রতিভাবান একজন অভিনেতা। বিশ্ব চলচ্চিত্র মঞ্চে ভারতের মশাল বহন করেছেন। তাকে ভীষণ মিস করবো। তার শোকাহত পরিবার, বন্ধু ও ভক্তদের প্রতি আমার সমবেদনা।’
‘পিকু’ (২০১৫) ছবিতে বলিউড শাহেনশাহ অমিতাভ বচ্চনের সঙ্গে অভিনয় করেছিলেন ইরফান। বিগ বি টুইটে লিখেছেন, ‘ইরফান খানের চলে যাওয়া খুবই দুঃখজনক ও বেদনাদায়ক। তার মধ্যে অসাধারণ প্রতিভা ছিল। তাকে উদার মনের সহকর্মী হিসেবে পেয়েছি। বিশ্ব চলচ্চিত্রকে অনেক কিছু দিয়েছে সে। খুব তাড়াতাড়ি আমাদের ছেড়ে চলে গেলো ছেলেটা। তার প্রয়াণে বিশাল শূন্যতা তৈরি হলো। প্রার্থনা করি সে ভালো থাকুক।’
অমিতাভের পুত্রবধূ ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন তার প্রত্যাবর্তনের ছবি ‘জাজবা’য় (২০১৫) ইরফানের সঙ্গে অভিনয় করেন। ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে অ্যাশ লিখেছেন, ‘হৃদয়বিদারক খবর। আমার প্রিয় বন্ধু ইরফান খানের মৃত্যুর কথা শুনে খুব দুঃখ পেলাম। আলোকিত, খাঁটি, নম্র, দয়ালু ও দৃঢ় মনোবলের মানুষ ছিলেন তিনি। শান্তিতে থাকুক তার আত্মা। সৃষ্টিকর্তা তার মঙ্গল করুন। এমন কঠিন সময়ে তার স্ত্রী সুতপা, দুই ছেলে বাবিল ও আয়ান এবং প্রিয়জনদের জন্য রইলো ভালোবাসা ও সমবেদনা।’
ইরফানের সঙ্গে ‘পান সিং তোমর’, ‘দ্য লাঞ্চবক্স’ ও ‘দ্য বাইপাস’ ছবিতে অভিনয় করেছেন নওয়াজুদ্দিন সিদ্দিকি। হিন্দি ছবিতে দিনবদলের রূপকার ভাবা হয় এই দু’জনকে। আবেগপ্রবণ নওয়াজ টুইটারে লিখেছেন, “২০০০ সালে ইরফান খানের পরিচালনায় ‘আলবিদা’ নামের একটি ছবিতে অভিনয় করেছিলাম। তিনি ছিলেন আমার মেন্টর। এজন্য আমি ভাগ্যবান। বিশ্ব চলচ্চিত্রে কেউই তার শূন্যস্থান পূরণ করতে পারবে না। দুঃস্বপ্নেও কখনও ভাবিনি, এত তাড়াতাড়ি তাকে ‘আলবিদা’ বলতে হবে। শান্তিতে থাকুন।”
বুধবার (২৯ এপ্রিল) দিনভর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে জাদুকরি এই অভিনেতাকে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন তারকারা। প্রত্যেকে তার কাজ এবং তার সঙ্গে কাটানো সময়ের কথা স্মরণ করেছেন। পুরো বলিউডবাসীর চোখে তিনি ছিলেন দুর্দান্ত একজন অভিনেতা। সবার কথায়, ‘আপনি ছিলেন আমাদের সেরা।’


ইরফানের শেষ ছবি ‘অ্যাংরেজি মিডিয়াম’ ছবির নায়িকা কারিনা কাপুর খান ও রাধিকা মদন এবং পরিচালক হোমি আদাজানিয়া ও প্রযোজক দীনেশ বিজন, ‘হিন্দি মিডিয়াম’-এর নায়িকা সাবা কামারসহ পাকিস্তানি তারকারা শোক প্রকাশ করেছেন।
অভিনেতাদের মধ্যে শোক জানান অক্ষয় কুমার, অজয় দেবগণ, হৃতিক রোশন, শহিদ কাপুর, অনিল কাপুর, রণবীর সিং, জন আব্রাহাম, সিদ্ধার্থ মালহোত্রা, বরুণ ধাওয়ান, কার্তিক আরিয়ান, ফারহান আখতার, সঞ্জয় দত্ত, অভিষেক বচ্চন, আয়ুষ্মান খুরানা, মাধবন, রিতেশ দেশমুখ, রণদীপ হুদা, অর্জুন রামপাল, ভিকি কৌশল, মনোজ বাজপেয়ি, দীপক দোবরিয়াল, ধর্মেন্দ্র, সোনু সুদ, অনুপম খের, বোমান ইরানি, পরেশ রাওয়াল, তাহির রাজ ভাসিন, পঙ্কজ ত্রিপাঠিসহ বলিউডের প্রায় সব অভিনেতা।
অভিনেত্রীদের মধ্যে শোকগাথা টুইট করেছেন কাজল, প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, দীপিকা পাড়ুকোন, কারিনা কাপুর, ক্যাটরিনা কাইফ, আনুশকা শর্মা, কঙ্গনা রনৌত, ‘হায়দার’ ছবির অভিনেত্রী শ্রদ্ধা কাপুর, ভূমি পেডনেকর, তাপসী পান্নু, সোনম কাপুর, সোনাক্ষী সিনহা, পরিণীতি চোপড়া, আলিয়া ভাট, দিশা পাটানি, রিচা চাড্ডা, জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ, চিত্রাঙ্গদা সিং, প্রীতি জিনতা, লারা দত্ত, শিল্পা শেঠি, রাভিনা ট্যান্ডন, নিমরাত কৌর, অদিতি রাও হায়দারি, শ্রুতি হাসান, শাবানা আজমি, নন্দিতা দাস প্রমুখ।
এছাড়া নির্মাতা মহেশ ভাট, শেখর কাপুর, করণ জোহর, আনিস বাজমি, সুজিত সরকার, অনুরাগ বসু, জোয়া আখতার, সুধীর মিশ্র, প্রযোজক গুনীত মঙ্গা, কমেডিয়ান কপিল শর্মা, কিকু সারদা, সুরকার এ আর রাহমান, গীতিকার জাভেদ আখতার শোক প্রকাশ করেছেন।
দক্ষিণী ছবির তারকারাও শোকার্ত। মেগাস্টার কমল হাসান, চিরঞ্জীবী, মহেশ বাবু, দুলকার সালমান, মোহনলাল, ধানুষ, রামচরণ, তামান্না ভাটিয়া, পূজা হেগড়ে টুইট করে ইরফানকে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন।
ভারতের ক্রীড়াঙ্গনও শোকাহত। সাবেক ক্রিকেটার শচীন টেন্ডুলকার টুইটারে লিখেছেন, “ইরফান খানের মারা যাওয়ার সংবাদ শুনে দুঃখ পেলাম। তিনি আমার পছন্দের একজন অভিনেতা ছিলেন। তার প্রায় সব ছবিই দেখেছি। সবশেষ দেখলাম ‘অ্যাংরেজি মিডিয়াম’। অভিনয়টা তার কাছে সহজাত। তিনি ছিলেন দুর্দান্ত। তার আত্মার শান্তি কামনা করি। তার প্রিয়জনদের সমবেদনা জানাই।”
দুই বছর ক্যানসারের সঙ্গে লড়াইয়ের পর হার মেনেছেন ভারতীয় অভিনেতা ইরফান খান। কোলন সংক্রমণের কারণে বুধবার (২৯ এপ্রিল) মুম্বাইয়ের কোকিলাবেন ধিরুবাই আম্বানি হাসপাতালে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। তার বয়স হয়েছিল ৫৩ বছর।
স্ত্রী সুতপা সিকদার ও দুই ছেলে বাবিল ও আয়ানকে রেখে গেছেন ইরফান। বুধবার বিকালে মুম্বাইয়ের ভারসোভা কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। বলিউডের পাশাপাশি হলিউডের বেশ কিছু ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি।

/জেএইচ/এমএম/এমওএফ/

লাইভ

টপ