টম ক্রুজকে শুটিংয়ের অনুমতি দিলো নরওয়ে

Send
বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৭:২৬, জুলাই ২৫, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:৩১, জুলাই ২৫, ২০২০

টম ক্রুজকরোনা মহামারিতে ব্যতিক্রমী এক সিদ্ধান্ত নিলো নরওয়ে সরকার। আর তা শুধু হলিউড সুপারস্টার টম ক্রুজ বলেই সম্ভব হলো। এই তারকার ব্যক্তিগত আবেদনের প্রেক্ষিতে ‌‘মিশন: ইম্পসিবল’-এর শুটিং করার অনুমতি দিলেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী এর্না সলবার্গ।
তবে এই করোনা পরিস্থিতিতে তাদের মানতে হবে কঠোর কিছু নীতিমালা।
সবার থেকে একেবারে বিচ্ছিন্ন হয়ে যেতে হবে টমসহ পুরো টিমকে। অন্যদের সঙ্গে কোনোভাবেই সাক্ষাত না করার শর্ত জুড়ে দেওয়া হয়েছে।
দেশটির সংস্কৃতিমন্ত্রী আবিদ রাজার বরাতে এমন তথ্যই জানা গেছে।
কোভিড-১৯ মহামারির কারণে ‘মিশন: ইম্পসিবল’ ছবির সপ্তম ও অষ্টম পর্বের মুক্তির তারিখ পিছিয়ে দেওয়া হয়।
সপ্তম পর্ব ২০২১ সালের নভেম্বর মাসে এবং অষ্টম পর্ব ২০২২ সালের নভেম্বর মাসে মুক্তি দেওয়ার কথা। গত ফেব্রুয়ারিতে সর্বশেষ ছবির কাজ হয়। এতে অন্যতম প্রযোজক হিসেবে আছে নরওয়ের চলচ্চিত্র সংস্থা।
এদিকে জানা যায়, ছবিটির শুটিং করার জন্য টম ক্রুজ ব্যক্তিগত যোগাযোগের মাধ্যমে আবেদন করেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ও সংস্কৃতি মন্ত্রীর কাছে।
এরপর এই সুপারস্টারের সম্মানে অনুমতি দেন প্রধানমন্ত্রী।
গত শুক্রবার (২৩ জুলাই) সংস্কৃতিমন্ত্রী আবিদ রাজা বলেন, ‘এটা একটি ব্যতিক্রমী ঘটনা (অনুমতি) হচ্ছে। তবে চলচ্চিত্রটির পুরো টিম অন্যদের থেকে বিচ্ছিন্ন থাকতে হবে। নরওয়েতে পৌঁছার আগেই তাদের কোভিড-১৯ টেস্ট করতে হবে। সঙ্গে মেডিক্যাল টিমসহ মোবাইল পরীক্ষাগার নিয়ে আসতে হবে।’
অনুমতির বিষয়টি টম ক্রুজ আবিদ রাজার সঙ্গে ভিডিও কথোপকথনের মাধ্যমে জানতে পারেন। এতে সংস্কৃতিমন্ত্রী বলেন, ‘আশা করছি, শিগগিরই আপনাদের নরওয়েতে দেখতে পাবো।’
ক্রুজ উত্তরে বলেছেন, ‘ওহ, আমিও। নরওয়ের মানুষ, প্রকৃতি ও সংস্কৃতিকে খুব পছন্দ করি। আমি আর অপেক্ষা করতে পারছি না।’
জানা যায়, ‘মিশন: ইম্পসিবল’-এর পরবর্তী কিস্তির জন্য ইতোমধ্যে সাড়ে ৫ মিলিয়ন ডলার খরচ করেছে নরওয়ে চলচ্চিত্র ইনস্টিটিউট।
ছবিটির শুটিংয়ে অনুমতি দেওয়াতে এটাও প্রভাব ফেলেছে বলে স্বীকার করেছে দেশটির সরকার।
জানা যায়, ‌‘মিশন: ইম্পসিবল’-এর পরের দুটি পর্বেই পরিচালক হিসেবে থাকছেন এর কাহিনিকার ক্রিস্টোফার ম্যাককুয়্যারি। ছবিতে বরাবরের মতো গুপ্তচর ইথান হান্টের ভূমিকায় থাকবেন টম ক্রুজ।
সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

/এম/এমএম/

লাইভ

টপ