এমিতে বাপ-বেটার জয়জয়কার, জেন্ডায়ার ইতিহাস

Send
জনি হক
প্রকাশিত : ১৫:৩৮, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:৫৫, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২০

‘ইউফোরিয়া’র দৃশ্যে জেন্ডায়ালালগালিচা নেই। রূপের ঝলক দেখানো তারকারাও নেই। করোনাভাইরাস সেই জৌলুস বাক্সবন্দি করে রেখেছে। তবুও জমজমাট টেলিভিশনের ‘অস্কার’তুল্য প্রাইমটাইম এমি অ্যাওয়ার্ডস। বেশকিছু রেকর্ডের জন্ম হয়েছে এর ৭২তম আসরে। পুরনো বিজয়ীদের বেশিরভাগই ফিরেছেন শূন্য হাতে। এছাড়া ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার আন্দোলনের আবহ ছড়িয়েছেন তারকারা।
এমির সম্মানজনক রাতে সবচেয়ে বড় অঘটনের জন্ম দিয়েছেন জেন্ডায়া। এইচবিও চ্যানেলের ‘ইউফোরিয়া’য় হাইস্কুল পড়ুয়া মাদকাসক্ত চরিত্রে অসামান্য কাজ করে সেরা ড্রামা সিরিজের অভিনেত্রী হয়েছেন ২৪ বছর বয়সী এই আমেরিকান তারকা। এর মধ্য দিয়ে সবচেয়ে কম বয়সে পুরস্কারটি জয়ের ইতিহাস গড়লেন তিনি। একই বিভাগে এবার মনোনীত লরা লিনি (অজার্ক), অলিভার কোলম্যান (দ্য ক্রাউন), জেনিফার অ্যানিস্টোন (দ্য মর্নিং শো), সান্ড্রা ওহ (কিলিং ইভ), জোডি কোমার (কিলিং ইভ) এই কৃষ্ণাঙ্গ তরুণীর কাছে হেরে গেছেন।
এমির ইতিহাসে ড্রামা সিরিজের সেরা অভিনেত্রী বিভাগে এর আগে কৃষ্ণাঙ্গ তারকাদের মধ্যে কেবল রেজিনা কিং পুরস্কারটি পেয়েছেন ৬৭তম আসরে। এবার তার নামের পাশে যুক্ত হলেন জেন্ডায়া।
এবারের এমি অ্যাওয়ার্ডসে রাজত্ব করেছে এইচবিও চ্যানেলের ‘সাকসেশন’ ও ‘ওয়াচমেন’ এবং পপ টিভি নেটওয়ার্কে বাপ-বেটার “শিট’স ক্রিক”।   
এমি পুরস্কার হাতে ড্যানিয়েল লেভি ও ইউজিন লেভিসেরা লিমিটেড সিরিজসহ সর্বাধিক ১১টি পুরস্কার বাগিয়ে নিয়েছে ‘ওয়াচমেন’। আমেরিকায় বর্ণবাদের চিত্র তুলে ধরে সাজানো এই সুপারহিরো সিরিজে মারকুটে গোয়েন্দা পুলিশ হিসেবে অসামান্য কাজ করে জন্য সেরা অভিনেত্রী (লিমিটেড সিরিজ) হয়েছেন অস্কারজয়ী রেজিনা কিং। তার ঘরে পুরস্কার পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। তিনি পরেছিলেন কৃষ্ণাঙ্গ নারী ব্রিওনা টেলরের ছবিসংবলিত টি-শার্ট। গত মার্চে কেনটাকিতে পুলিশের গুলিতে নিহত হন ওই নারী।
রেজিনার মতোই লিমিটেড সিরিজের সেরা পার্শ্ব অভিনেত্রী উজু আদুবা (মিসেস আমেরিকা) পরেছিলেন ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার থিমের টি-শার্ট।
কৃষ্ণাঙ্গ তারকা ইয়াহিয়া আব্দুল-মতিন দ্বিতীয়কে ‘ওয়াচমেন’ এনে দিয়েছে সেরা পার্শ্ব অভিনেতার (লিমিটেড সিরিজ) স্বীকৃতি। লিমিটেড সিরিজটির গল্পকার হিসেবে এমি জিতেছেন ডেমন লিন্ডেলফ। ১৯২১ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ওকলাহোমার তুলসায় কৃষ্ণাঙ্গ সম্প্রদায়ের গণহত্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ও আহতদের পুরস্কারটি উৎসর্গ করেন তিনি।
ইয়াহিয়া আব্দুল-মতিনসেরা কমেডি সিরিজসহ সর্বাধিক ৯টি পুরস্কার জিতেছে পপ টিভি নেটওয়ার্কের “শিট’স ক্রিক”। একই আসরে কোনও কমেডি সিরিজ এর আগে এত বিভাগে সেরা হয়নি। এদিক দিয়ে রেকর্ড গড়েছে “শিট’স ক্রিক”। ২০১৫ সালে পপ টিভিতে এটি শুরু হয়। বিশ্বজুড়ে ভক্তদের তুমুল চাহিদার কারণে পরে নেটফ্লিক্সে যুক্ত করা হয় সিরিজটি। এ বছর এর ষষ্ঠ ও শেষ মৌসুম প্রচারিত হয়েছে।
বাবা-ছেলে ইউজিন লেভি ও ড্যানিয়েল লেভি মিলে তৈরি করেছেন “শিট’স ক্রিক” সিরিজটি। এটি একটি ধনী পরিবারের গল্প। সম্পদ খুঁইয়ে ফেলার কারণে ছোট্ট একটি জীর্ণশীর্ণ মোটেলে থাকতে বাধ্য হয় তারা।
সিরিজটির গল্পকার, পরিচালক ও পার্শ্ব অভিনেতা (কমেডি সিরিজ) হিসেবে ড্যানিয়েল লেভি একাই জিতেছেন তিনটি পুরস্কার। অবশ্য পরিচালকের স্বীকৃতি অ্যান্ড্রু সিভিডিনের সঙ্গে ভাগাভাগি করেছেন। ড্যানিয়েলের বাবা ইউজিন লেভি হয়েছেন সেরা অভিনেতা (কমেডি সিরিজ)।
অভিনেত্রী ও পার্শ্ব অভিনেত্রী (কমেডি সিরিজ) যথাক্রমে ক্যাথেরিন ও’হারা এবং অ্যানি মারফি। তারা সবাই কানাডিয়ান তারকা। সবাই নিজেদের ট্রফি গ্রহণ করেছেন কানাডার অন্টারিওতে রেস্তোরাঁ ঢঙের একটি জায়গায়। তাদের মধ্যে ক্যাথেরিন ও’হারা ক্যারিয়ারে প্রথমবার এমি জিতলেন।
সাকসেশনকট্টর মিডিয়া পরিবারের সরস গল্প নিয়ে নির্মিত ‘সাকসেশন’ এমি অ্যাওয়ার্ডসের সর্বোচ্চ স্বীকৃতি সেরা ড্রামা সিরিজসহ সাতটি পুরস্কার জিতেছে। এতে পরিবারের নিপীড়িত ছেলের ভূমিকায় অনবদ্য নৈপুণ্য দেখিয়ে সেরা অভিনেতা (ড্রামা সিরিজ) হয়েছেন জেরেমি স্ট্রং। সিরিজটির জন্য গতবারের মতো সেরা চিত্রনাট্যকার হয়েছেন জেসি আর্মস্ট্রং। আর সেরা পরিচালক হয়েছেন আন্ড্রি পারেখ।
টানা দ্বিতীয়বার সেরা পার্শ্ব অভিনেত্রী (ড্রামা সিরিজ) হয়েছেন জুলিয়া গার্নার। নেটফ্লিক্সের মাদক পাচার বিষয়ক থ্রিলার ‘অজার্ক’-এ অভিনয় করেছেন তিনি। মেরিল স্ট্রিপ (বিগ লিটল লাইস), লরা ডার্ন  (বিগ লিটল লাইস), হেলেনা বোনহ্যাম কার্টার (দ্য ক্রাউন) ও থ্যান্ডি নিউটনের (ওয়েস্ট ওয়ার্ল্ড) মতো গুণী অভিনেত্রীদের হটিয়ে সেরা হয়েছেন ২৬ বছর বয়সী এই তারকা।
জুলিয়া গার্নার‘হাল্ক’ তারকা মার্ক রাফেলো লিমিটেড সিরিজ/মুভি বিভাগে সেরা অভিনেতার সম্মান পেয়েছেন। এইচবিও’র ‘আই নো দিস মাচ ইজ ট্রু’ সিরিজের সুবাদে পুরস্কারটি উঠলো তার হাতে।
অ্যাপল টিভি প্লাসের ‘দ্য মর্নিং শো’র জন্য পার্শ্ব অভিনেতা (ড্রামা সিরিজ) হয়েছেন বিলি ক্রুডুপ। সেরা পরিচালক (লিমিটেড সিরিজ) স্বীকৃতি গেছে জার্মানির মারিয়া শ্রেডারের (আনঅর্থোডক্স) কাছে।
টানা পঞ্চমবার সেরা ভ্যারাইটি টক সিরিজ হয়েছে এইচবিও’র ‘লাস্ট উইক টুনাইট উইথ জন অলিভার’। লিভারপুলের জার্সি পরে পুরস্কারটি নেন ব্রিটিশ এই কমেডিয়ান।
যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেসের স্টেপলস সেন্টারে রবিবার (২০ সেপ্টেম্বর) ফাঁকা মিলনায়তনে এই আয়োজন সঞ্চালনা করেন আমেরিকান তারকা জিমি কিমেল। বিজয়ীদের সঙ্গে অনলাইনে আলাপ করেছেন তিনি। অনুষ্ঠানে স্মরণ করা হয় ‘ব্ল্যাক প্যান্থার’ তারকা চ্যাডউইক বোজম্যান, অভিনেতা কার্ক ডগলাস, স্যার আয়ান হোম, অভিনেত্রী নায়া রিভেরা, ডায়ানা রিগ, আমেরিকান পাপেটশিল্পী ক্যারল স্পিনিকে।
এ সপ্তাহের শুরুতে অভিনয়শিল্পী নির্বাচন, চুল ও রূপসজ্জা, আলোক পরিকল্পনা, শব্দসজ্জাসহ কারিগরি বিভাগে ক্রিয়েটিভ আর্টস এমিস পুরস্কার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়। ১৯৪৯ সাল থেকে দেওয়া হচ্ছে এমি। এমি অ্যাওয়ার্ডসের মনোনীতদের সঙ্গে অনলাইনে আলাপ করেছেন সঞ্চালক জিমি কিমেল

/জেএইচ/এমএম/

লাইভ

টপ
X