উপস্থাপনায় অ্যাডেলের অভিষেক, ওজন কমানো নিয়ে রসিকতা

Send
বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত : ০০:০৭, অক্টোবর ২৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১২:৫০, অক্টোবর ২৬, ২০২০

‘স্যাটারডে নাইট লাইভ’ অনুষ্ঠানে অ্যাডেলসেই ২০১৭ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি ৫৯তম গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ডসে সবশেষ জনসম্মুখে দেখা দিয়েছিলেন অ্যাডেল। সাড়ে তিন বছরেরও বেশি সময় পর টেলিভিশনের পর্দায় ফিরলেন ব্রিটিশ এই গায়িকা।

তবে শুধু গান নয়, উপস্থাপক হিসেবে দর্শকদের সামনে এসেছেন এবার। এমন কাজ এটাই তার জন্য প্রথম। মার্কিন টেলিভিশন নেটওয়ার্ক এনবিসির জনপ্রিয় কমেডি অনুষ্ঠান ‘স্যাটারডে নাইট লাইভ’ উপস্থাপনা করেছেন তিনি।

গ্র্যামিতে যে অ্যাডেলকে দেখা গিয়েছিল, এখন যেন তাকে চেনাই দায়! সম্প্রতি ওজন কমিয়ে তিনি যেন হয়ে উঠেছেন তন্বি-তরুণী। এ নিয়ে শনিবার (বাংলাদেশ সময় রবিবার) রসিকতা করেছেন, গানও করেছেন।

মঞ্চে দাঁড়িয়ে ৩২ বছর বয়সী এই তারকা বলেন, ‘আমি জানি আপনারা আমাকে শেষবার যেমন দেখেছিলেন, এখন আমাকে সত্যিই ভিন্নরকম লাগছে।’ এরপরই রসিকতা যোগ করেছেন, ‘সত্যি বলতে কোভিড-১৯ বিধিনিষেধের কারণে বেশি ওজন রাখা সম্ভব হয়নি। এ কারণে আমার অর্ধেকটা কেবল আনতে পেরেছি!’



অ্যাডেলের কথায়, ‘স্যাটারডে নাইট লাইভ’ অনুষ্ঠানে একইসঙ্গে গান করা ও উপস্থাপনা নিয়ে কিছুটা ভয় কাজ করেছিল তার মধ্যে। তাছাড়া তার সরল স্বীকারোক্তি, ‘লাইভে বরাবরই নার্ভাস থাকি। এবারও ব্যতিক্রম হয়নি।’
অবশ্য সূচনাতে জানান দেন, ‘একযুগ আগে আমেরিকায় আমার ক্যারিয়ার শুরু হয়েছিল। তাই অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করতে পেরে আমি সত্যিই উচ্ছ্বসিত।’

অ্যাডেল মনে করিয়ে দিয়েছেন, ২০০৮ সালে ‘স্যাটারডে নাইট লাইভ’-এ সারা পেলিনের সাজে এসেছিলেন উপস্থাপক-অভিনেত্রী টিনা ফে। ওই আয়োজনে সংগীত অতিথি হিসেবে অংশ নেন অ্যাডেল। এতে তিনি পরিবেশন করেন ‘চেজিং পেভমেন্টস’ এবং ‘কোল্ড শোল্ডার’। বাকিটা ইতিহাস। এর মাধ্যমে রাতারাতি তারকায় পরিণত হন তিনি। অনুষ্ঠানের ওই পর্ব ১৪ বছরে ‘স্যাটারডে নাইট লাইভ’-এর ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি রেটিং পেয়েছিল। এটি প্রচারের একদিন পর আইটিউন্স চার্টের শীর্ষে ওঠে ‘নাইনটিন’। আর বিলবোর্ড চার্টের ৪৬ থেকে একলাফে ১১ নম্বর স্থান দখল করে ‘চেজিং পেভমেন্টস’।
সামনে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। তবে উপস্থাপক অ্যাডেল জানিয়েছেন, আমেরিকান রাজনীতি সম্পর্কে কিছুই জানেন না!

শনিবারের অনুষ্ঠান করোনাভাইরাস মহামারিতে সামনের সারির সেবা প্রদানকারীদের উৎসর্গ করেছেন অ্যাডেল। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে এই আয়োজনে ছিলেন আমন্ত্রিত কিছু দর্শক। তারা করতালিতে গ্র্যামিজয়ী কণ্ঠশিল্পীকে সিক্ত করেন।

 

‘স্যাটারডে নাইট লাইভ’-এর একটি অংশে বিখ্যাত রিয়েলিটি শো ‘দ্য ব্যাচেলর’-এর হাস্যরসধর্মী সংস্করণে দেখা যায়, প্রেমিকের খোঁজে প্রতিযোগিতায় নাম লিখিয়েছেন অ্যাডেল। এতে নিজের বিখ্যাত গান ‘রোলিং ইন দ্য ডিপ’, ‘হ্যালো’, ‘সেট ফায়ার টু দ্য রেইন’, ‘সামওয়ান লাইক ইউ’ গেয়ে শুনিয়েছেন। এর ফাঁকে কথায় কথায় নিজের তিনটি একক অ্যালবাম ‘নাইনটিন’, ‘টোয়েন্টি ওয়ান’ এবং ‘টোয়েন্টি ফাইভ’-এর নাম উল্লেখ করেছেন।

পাঁচ বছর হয়ে গেলো অ্যাডেলের সবশেষ একক অ্যালবাম বেরিয়েছে। তিনি ভক্তদের জানান, নতুন অ্যালবামের কাজ এখনও শেষ হয়নি।

/জেএইচ/এমএম/এমওএফ/

লাইভ

টপ