X
সকল বিভাগ
সেকশনস
সকল বিভাগ

চীনে আবারও করোনার উৎস তদন্তের প্রস্তাব ডব্লিউএইচও'র

আপডেট : ১৭ জুলাই ২০২১, ০৪:২৪

চীনে নভেল করোনাভাইরাসের উৎস তদন্তে আবারও প্রস্তাব দিয়েছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান টেড্রোস আডানোম গেব্রিয়াসি। কোভিড-১৯ এর পরবর্তী তদন্তে পাঁচটি বিষয়ে অগ্রাধিকারের কথা জানিয়েছেন তিনি।

শুক্রবার এক ব্রিফিংয়ে ডব্লিউএইচওর প্রধান বলেন, কোভিডের উৎস তদন্তে ভৌগলিক বিষয়টিকে অবশ্যই প্রাধান্য দেওয়া উচিত। এছাড়া উহান শহর এবং এর আশপাশের বন্য প্রাণীর বাজারে আরও বেশি গবেষণার প্রয়োজন। ২০১৯ সালে উহানেই প্রথম করোনা শনাক্ত হয়েছিল।

এর আগে উহান শহরে চীনা গবেষকদের সঙ্গে চার সপ্তাহ অবস্থান করে ডব্লিউএইচওর একটি তদন্তকারী দল। পরে চলতি বছরের মার্চে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে তারা জানায়, ভাইরাসটি সম্ভবত বাদুড় থেকে অন্য পশুপাখির মাধ্যমে মানুষের শরীরে এসেছে।

উহানের কোনো ল্যাবরেটরি থেকে করোনাভাইরাস ছড়িয়েছে বলে দাবি করে আসছিলেন অনেক বিশেষজ্ঞ। ওই ধারণা একেবারেই ‘অসম্ভব’ বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করে ডব্লিউএইচওর তদন্তকারী দল। তবে সংস্থার ওই মন্তব্য মানতে পারেননি যুক্তরাষ্ট্রসহ অনেক দেশের বিজ্ঞানী ও গবেষকেরা। একই সঙ্গে নতুন করে তদন্ত করতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে চাপ দিয়ে আসছে বিশ্বের অনেক দেশ। আর নতুন গবেষণায় আপত্তি জানিয়েছে আসছে বেইজিং।

এদিন সংস্থাটির প্রধান জানান, এই প্রাণঘাতী ভাইরাসের উৎস অনুসন্ধানে রাজনীতি থেকে দূরে রাখতে হবে। এই বৈজ্ঞানিক কাজে চীনকেও সহায়তা করতে হবে মনে করেন তিনি। করোনাভাইরাসে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা প্রায় ৪০ লাখে দাঁড়িয়েছে। এই ভাইরাস চীনের ল্যাব থেকে ছড়িয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

/এলকে/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
বাংলাদেশি উদ্ভাবন চালু হলো ইয়েমেনে
বাংলাদেশি উদ্ভাবন চালু হলো ইয়েমেনে
নজরুলজয়ন্তীতে ‘উন্নত মম শির’
নজরুলজয়ন্তীতে ‘উন্নত মম শির’
‘রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে শস্য সরবরাহে ভয়ঙ্কর ঘাটতি দেখা দেবে’
‘রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে শস্য সরবরাহে ভয়ঙ্কর ঘাটতি দেখা দেবে’
র‌্যাব অ্যাওয়ার্ড পেলেন বাংলা ট্রিবিউনের সাংবাদিক রনি
র‌্যাব অ্যাওয়ার্ড পেলেন বাংলা ট্রিবিউনের সাংবাদিক রনি
এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
তাইওয়ানকে রক্ষায় প্রয়োজনে সামরিক হস্তক্ষেপ: বাইডেন
তাইওয়ানকে রক্ষায় প্রয়োজনে সামরিক হস্তক্ষেপ: বাইডেন
মাংকিপক্সের টিকা সবার প্রয়োজন হবে না: ডব্লিউএইচও বিশেষজ্ঞ
মাংকিপক্সের টিকা সবার প্রয়োজন হবে না: ডব্লিউএইচও বিশেষজ্ঞ
মাংকিপক্স ‘নিয়ন্ত্রণযোগ্য রোগ’: ডব্লিউএইচও
মাংকিপক্স ‘নিয়ন্ত্রণযোগ্য রোগ’: ডব্লিউএইচও