X
সকল বিভাগ
সেকশনস
সকল বিভাগ

মাদার তেরেসার সংস্থাই অনুরোধ পাঠিয়েছে: ব্যাংক অ্যাকাউন্ট জব্দ প্রসঙ্গে ভারত সরকার

আপডেট : ২৭ ডিসেম্বর ২০২১, ১৯:৩৯

মাদার তেরেসা প্রতিষ্ঠিত দাতব্য সংস্থা মিশনারিজ অব চ্যারিটিজের পরিচালিত ব্যাংক অ্যাকাউন্ট জব্দ করা হয়নি বলে জানিয়েছে ভারত সরকার। সোমবার সন্ধ্যায় ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক ব্যাখ্যায় বলা হয়েছে কলকাতাভিত্তিক দাতব্য প্রতিষ্ঠানটি নিজেই অ্যাকাউন্ট বাতিলের অনুরোধ জানিয়ে স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়াকে চিঠি দিয়েছে।

ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, গত ২৫ ডিসেম্বর তারা দাতব্য সংস্থাটির বৈদেশিক অনুদান নীতিমালার লাইসেন্স নবায়ন করতে প্রত্যাখান করেছে। শত্রুতামূলক অনুদান পাওয়ার বিষয়ে অবগত হওয়ার পর এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে আগামী ৩১ ডিসেম্বরের পর থেকে মিশনারিজ অব চ্যারিটিজের বৈদেশিক অনুদানের রেজিস্ট্রেশন আর বৈধ থাকবে না।

তবে এই বিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন মিশনারিজ অব চ্যারিটিজের কর্মকর্তারা।

মিশনারিজ অব চ্যারিটির খবর সামনে আসার প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই বিস্ময় প্রকাশ করেন মমতা। টুইটারে দেওয়া পোস্টে তিনি বলেন, ‘বড়দিনের উৎসবের মধ্যে মাদার তেরেসা-র মিশনারিজ অব চ্যারিটির সব ব্যাংক অ্যাকাউন্ট কেন্দ্রীয় সরকার বন্ধ করে দিয়েছে শুনে আমি বিস্মিত। মিশনারিজ অব চ্যারিটির ২২ হাজার রোগী এবং কর্মীরা খাবার এবং ওষুধ পাচ্ছেন না। আইন সবার উপরে হলেও মানবিক কাজকর্ম বন্ধ হয়ে যাওয়া ঠিক নয়।’

সম্প্রতি গুজরাটে বিতর্কে জড়ায় মাদার তেরেসার সংস্থা। ধর্মান্তকরণের অভিযোগে মোদির রাজ্যে মিশনারিজ অব চ্যারিটির বিরুদ্ধে এফআইআর-ও দায়ের হয়। গুজরাটের বডোদরা শহরে ওই সংগঠনের যে হোম রয়েছে, তার বিরুদ্ধে ধর্মান্তকরণ ছাড়াও হিন্দু ধর্মের ভাবাবেগে আঘাত করা হয় এমন কাজের অভিযোগ উঠে। তবে যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করা হয় সংগঠনের তরফে। তাদের দাবি, ওই হোমে কোনওভাবেই জোর করে কাউকে ধর্মান্তকরণ করা হয়নি।

প্রসঙ্গত, ১৯৫০ সালে কলকাতায় মাদার তেরেসা মিশনারিজ অব চ্যারিটি স্থাপন করেন। কলকাতার পাশাপাশি ভারতে এবং দেশটির বাইরেও বহু জায়গায় সক্রিয় তার প্রতিষ্ঠিত এই চ্যারিটি। ভারতে ২৪৩টি হোম রয়েছে সংস্থার। কলকাতায় প্রধান কার্যালয় সরকারিভাবে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট জব্দ হয়ে যাওয়া নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে না চাইলেও সংস্থার একজন সদস্য বলেন, ‘গোটা দেশে ও বিদেশে অনেক সেবামূলক কাজের সঙ্গে আমরা যুক্ত। হাজার হাজার অসুস্থ মানুষের সেবা চলে। কিন্তু এর ফলে সেই রোগীদের খাবার থেকে ওষুধ সরবরাহ সমস্যার মুখে পড়বে।’

/জেজে/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
গৌতম চক্রবর্তীর প্রয়াণে বিএনপি অত্যন্ত ক্ষতিগ্রস্ত: মির্জা ফখরুল
গৌতম চক্রবর্তীর প্রয়াণে বিএনপি অত্যন্ত ক্ষতিগ্রস্ত: মির্জা ফখরুল
মুশফিক-লিটনের জন্য কষ্ট হচ্ছে মুমিনুলের
মুশফিক-লিটনের জন্য কষ্ট হচ্ছে মুমিনুলের
টাঙ্গাইলে জাপাতে যোগ দিলেন ব্যবসায়ী-শিক্ষার্থীসহ ৪০ জন 
টাঙ্গাইলে জাপাতে যোগ দিলেন ব্যবসায়ী-শিক্ষার্থীসহ ৪০ জন 
বেকসুর শাহরুখপুত্র!
বেকসুর শাহরুখপুত্র!
এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
ভারতে ‘কুকুর হাঁটানো’ বিতর্ক: আমলা ও তার স্ত্রীকে আলাদা রাজ্যে বদলি
ভারতে ‘কুকুর হাঁটানো’ বিতর্ক: আমলা ও তার স্ত্রীকে আলাদা রাজ্যে বদলি
নতুন নিষেধাজ্ঞা এড়ালো উ. কোরিয়া
নতুন নিষেধাজ্ঞা এড়ালো উ. কোরিয়া
জ্বালানির দাম বাড়ালো পাকিস্তান
জ্বালানির দাম বাড়ালো পাকিস্তান
আন্তর্জাতিক বুকার পুরস্কার পেলেন প্রথম ভারতীয়
আন্তর্জাতিক বুকার পুরস্কার পেলেন প্রথম ভারতীয়
পশ্চিমবঙ্গের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর চ্যান্সেলর হবেন মুখ্যমন্ত্রী!
পশ্চিমবঙ্গের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর চ্যান্সেলর হবেন মুখ্যমন্ত্রী!