X
সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২
১১ আশ্বিন ১৪২৯

অনুব্রত ও তার সহযোগীদের ১৭ কোটি রুপির ফিক্সড ডিপোজিট ফ্রিজ

রক্তিম দাশ, কলকাতা
১৮ আগস্ট ২০২২, ০০:৫২আপডেট : ১৮ আগস্ট ২০২২, ০১:১০

গরুপাচার মামলায় সিবিআই হেফাজতে থাকা বীরভূমের তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল ও তার সহযোগীদের প্রায় ১৭ কোটি রুপির ফিক্সড ডিপোজিট খোঁজ পেয়ে তা বাজেয়াপ্ত করেছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিবিআই। এই বিপুল পরিমাণ রুপি রাজ্যের বিভিন্ন ব্যাংকে ফিক্সড ডিপোজিট হিসেবে রাখা রয়েছে।

জানা গেছে, গরুপাচারের তদন্তে নেমে অনুব্রত ও তার ঘনিষ্ঠদের ১৬ কোটি ৯৭ লাখ রুপির হদিশ পায় সিবিআই। এরপরেই রাজ্যের বিভিন্ন ব্যাংকে থাকা এই ফিক্সড ডিপোজিটগুলো বাজেয়াপ্ত করা হয়। যাতে কোনোভাবেই এগুলো ভাঙিয়ে অর্থ তোলা না যায়। যে যে অ্যাকাউন্ট থেকে ওই বিপুল পরিমাণ রুপি ফিক্সড ডিপোজিট করা হয়েছিল, সেই অ্যাকাউন্টগুলো সংশ্লিষ্ট ব্যাংকে চিঠি দিয়ে লেনদেন বন্ধ করার নির্দেশ ইতোমধ্যে দেওয়া হয়েছে সিবিআইয়ের তরফে।

আরও জানা গেছে, দু’টি রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ও একটি বেসরকারি ব্যাংকে অ্যাকাউন্টের হদিশ পাওয়া গেছে। এর মধ্যে রয়েছে- স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়া, ব্যাংক অব ইন্ডিয়া ও অ্যাক্সিস ব্যাংক। অনুব্রত ও তার পরিবারের সদস্যদের নামে এসব ব্যাংকে একাধিক ডিপোজিট রয়েছে।

বুধবার সকালে গরুপাচারের বিপুল পরিমাণ রুপির খোঁজে বোলপুরে পূর্বপল্লির একটি বাড়িতে যান সিবিআইয়ের কর্মকর্তারা। সেখানে অনুব্রতর চাটার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট মণীশ কোঠারিকে ঘণ্টা দু’য়েক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। ইতোমধ্যে সুকন্যার সম্পত্তির হিসাব জানতে চাওয়া হয়েছে মণীশ কোঠারির কাছে। জানা গেছে, তদন্তকারীদের দাবি করছেন, সুকন্যার নামে একাধিক কোম্পানি রয়েছে। অনুব্রতের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে বিশেষ লেনদেন না হলেও ওই সব কোম্পানিতে বিপুল পরিমাণে টাকার লেনদেন হয়েছে। এদিন ডাকা হয়েছিল দুই ব্যাংক কর্মীকেও। এরপরই একটি রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ব্যাংকের বোলপুরের শাখায় যান তদন্তকারীরা।

জানা গেছে, ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার ওই শাখায় বেশ কিছুক্ষণ ছিলেন সিবিআই কর্মকর্তারা। অ্যাকাউন্ট সংক্রান্ত তথ্য চেয়ে ব্যাংক কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন জানিয়েছে সিবিআই। তারা দেখতে চান, ওই ব্যাংকে অনুব্রত বা তার মেয়ের কয়টি অ্যাকাউন্ট আছে, সেগুলোতে কার সঙ্গে লেনদেন চলত। ওই ব্যাংকে অনুব্রত ও তার মেয়ে সুকন্যার অ্যাকাউন্ট রয়েছে। সেই শাখার ম্যানেজার এবং কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলেন তদন্তকারীরা। বোলপুরের ওই ব্যাংকেই অনুব্রত এবং তার আত্মীয়দের একাধিক ফিক্সড ডিপোজিটের হদিশ পান তদন্তকারীরা।

সিবিআই সূত্রে খবর, দুই ব্যাংক কর্মকর্তাকে তলব করা হয়েছে। ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে চিঠি দেওয়া হয় ওই অ্যাকাউন্টগুলোকে বাজেয়াপ্ত করার জন্য। তার পরেই বিকেলে প্রায় ১৬ কোটি ৯৭ লাখ রুপির ফিক্সড ডিপোজিট বাজেয়াপ্ত করেছেন গোয়েন্দারা।ওই অ্যাকাউন্টগুলোতে এত রুপি কোথা থেকে এলো, তা খতিয়ে দেখছে সিবিআই। এই রুপির সঙ্গে গরুপাচারের সর্ম্পক কতটা রয়েছে? এই রুপি অন্য কোথাও লেনদেন করা হয়েছে কীনা তাও খতিয়ে দেখেন তদন্তকারীরা।

এবার অনুব্রত মণ্ডলের মেয়ে প্রাথমিক শিক্ষক সুকন্যা মণ্ডলের চাকরি নিয়েও অভিযোগ উঠেছে। বুধবার আদালতে সুকন্যার চাকরি নিয়েই নানা বিস্ফোরক অভিযোগ করতে দেখা যায় আইনজীবী ফিরদৌস শামিমকে। তার দাবি, টেট পাস না করেই প্রাথমিকে চাকরি পেয়েছিলেন সুকন্যা। তিনি আরও দাবি করেছেন, স্কুলে যেতেন না সুকন্যা। উল্টো তাকে সই করানোর জন্য রেজিস্টার খাতা আসত বাড়িতে। তবে অনুব্রতর মেয়ে যে স্কুল পড়ান তা জানতেনই না শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে রীতিমতো বিস্ময় প্রকাশ করতে দেখা যায় তাকে। সুকন্যা মণ্ডলের চাকরির বিষয়ে প্রশ্ন করতেই ব্রাত্য বলেন, ‘আমি তো জানতামই না। এই প্রথম শুনলাম। উনি যে স্কুলে পড়ান তাই জানতাম না। এখন খোঁজ নিয়ে দেখি কী অবস্থা।’

সুকন্যা মণ্ডল বীরভূমের বোলপুরের কালিকাপুর প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষিক। তার সেই নিয়োগেই উঠেছে বেনিয়মের অভিযোগ। এ বিষয়ে আইনজীবী ফিরদৌস শামিম বুধবার হাইকোর্টে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের বেঞ্চে নানা নথি জমা দিয়েছেন।

এদিকে, এর আগে নিয়োগে অনিয়মের ভিযোগে চাকরি গিয়েছিল রাজ্যের সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পরেশ অধিকারীর কন্যা অঙ্কিতা অধিকারীর। তার জায়গায় চাকরি পেয়েছিলেন ববিতা সরকার। ববিতা আদালতে যে মামলা করেছিলেন তারও আইনজীবী ছিলেন ফিরদৌস শামিম। কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় নির্দেশ দিয়েছেন, বৃহস্পতিবার টেট সার্টিফিকেট ও নিয়োগপত্র নিয়ে সুকন্যা মণ্ডলকে আদালতে আসতে। আদালতে হাজিরা না দিলে, কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানানো হয়েছে।

/এএ/
সম্পর্কিত
অবশেষে কাঙ্ক্ষিত আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা পেলো ইউক্রেন
অবশেষে কাঙ্ক্ষিত আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা পেলো ইউক্রেন
ইতালির নির্বাচনে ডানপন্থী জর্জিয়া মেলোনির জয়
ইতালির নির্বাচনে ডানপন্থী জর্জিয়া মেলোনির জয়
যুক্তরাজ্য ও নরওয়ের রাষ্ট্রদূতকে তলব ইরানের
যুক্তরাজ্য ও নরওয়ের রাষ্ট্রদূতকে তলব ইরানের
তিন দিনের সাজা ভোগ করলেন ১১ মাস
তিন দিনের সাজা ভোগ করলেন ১১ মাস
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
অবশেষে কাঙ্ক্ষিত আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা পেলো ইউক্রেন
অবশেষে কাঙ্ক্ষিত আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা পেলো ইউক্রেন
নৌকাডুবিতে মৃত্যু বেড়ে ২৯
নৌকাডুবিতে মৃত্যু বেড়ে ২৯
হাজারীবাগে কুরিয়ার সার্ভিস ডিপোতে ‘বিস্ফোরণ’, নিহত ১ 
হাজারীবাগে কুরিয়ার সার্ভিস ডিপোতে ‘বিস্ফোরণ’, নিহত ১ 
৯ ঘণ্টা পর আবার উদ্ধার অভিযান শুরু
৯ ঘণ্টা পর আবার উদ্ধার অভিযান শুরু
এ বিভাগের সর্বশেষ
অবশেষে কাঙ্ক্ষিত আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা পেলো ইউক্রেন
অবশেষে কাঙ্ক্ষিত আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা পেলো ইউক্রেন
ইতালির নির্বাচনে ডানপন্থী জর্জিয়া মেলোনির জয়
ইতালির নির্বাচনে ডানপন্থী জর্জিয়া মেলোনির জয়
যুক্তরাজ্য ও নরওয়ের রাষ্ট্রদূতকে তলব ইরানের
যুক্তরাজ্য ও নরওয়ের রাষ্ট্রদূতকে তলব ইরানের
রাশিয়াকে ‘বিপর্যয়কর’ পরিণতির হুঁশিয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের
রাশিয়াকে ‘বিপর্যয়কর’ পরিণতির হুঁশিয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের
নাগরিকদের মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিচ্ছেন পুতিন: জেলেনস্কি
নাগরিকদের মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিচ্ছেন পুতিন: জেলেনস্কি