X
সকল বিভাগ
সেকশনস
সকল বিভাগ

ইরানের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের আহ্বান জাতিসংঘ মহাসচিবের

আপডেট : ৩০ জুন ২০২১, ১৯:০০

ইরানের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তনিও গুতেরেস। তিনি জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য দেশগুলোর কাছে পাঠানো এক প্রতিবেদনে বলেছেন, ২০১৫ সালে স্বাক্ষরিত পারমাণবিক চুক্তির শর্ত অনুযায়ী ইরানের ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার বা শিথিল করা হোক। মঙ্গলবার প্রতিবেদনটি নিয়ে ১৫ সদস্যের নিরাপত্তা পরিষদে আলোচনা হওয়ার কথা।

চিঠিতে জাতিসংঘ মহাসচিব লিখেছেন, আমি পরমাণু সমঝোতায় বর্ণিত সব নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি এবং একইসঙ্গে ইরানের প্রতি এই সমঝোতার প্রতিশ্রুতিতে পরিপূর্ণভাবে ফিরে আসার আহ্বান জানাই।

অ্যান্তনিও গুতেরেস বলেন, আমি এখনও বিশ্বাস করি ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচির শান্তিপূর্ণ অবস্থা সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়ার জন্য চুক্তিকে পুনরুজ্জীবিত করাই হচ্ছে সর্বশ্রেষ্ঠ পন্থা।

পারমাণবিক চুক্তি পুনর্বহালের লক্ষ্যে অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় পাঁচ বিশ্ব পরাশক্তির সঙ্গে ইরানের যখন ধারাবাহিক সংলাপ চলছে তখন এ আহ্বান জানালেন গুতেরেস। এপ্রিল থেকেই ভিয়েনায় ইউরোপীয় কূটনীতিকদের মধ্যস্থতায় ইরান ও যুক্তরাষ্ট্রের পরোক্ষা আলোচনা চলছে। আলোচনাটির সমন্বয়কের ভূমিকায় থাকা ইউরোপীয় ইউনিয়নের রাজনৈতিক প্রধান এনরিক মোরা বলেন, ষষ্ঠ পর্বে এই সপ্তাহে আমাদের অগ্রগতি হয়েছে। আমাদের চুক্তির কাছাকাছি কিন্তু এখনও চুক্তির করার মতো অবস্থায় পৌঁছাইনি।

সাধারণভাবে ইরান পারমাণবিক চুক্তি হিসেবে পরিচিত জয়েন্ট কম্প্রিহেনসিভ প্লান অব অ্যাকশন (জেসিপিওএ) ২০১৫ সালের ১৪ জুলাই ভিয়েনায় স্বাক্ষরিত হয়। এতে ইরানের সঙ্গে চুক্তিতে আবদ্ধ হয় জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচ সদস্য-চীন, ফ্রান্স, রাশিয়া, যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র এবং জার্মানি। চুক্তিতে আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের বিনিময়ে পারমাণবিক কর্মসূচি সীমিত রাখার প্রতিশ্রুতি দেয় ইরান। কিন্তু ২০১৮ সালে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে সরিয়ে নেন এবং ইরানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল করেন। এর পাল্টা পদক্ষেপ হিসেবে ইরান পারমাণবিক চুক্তির শর্ত লঙ্ঘন করে ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ শুরু করেছে। তেহরানের বলে আসছে, নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার না হলে তারা চুক্তির শর্ত মানবে না। সূত্র: পার্স টুডে

 

/এএ/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
তেলের দাম আর কাকে বলে!
কান ডায়েরি-২তেলের দাম আর কাকে বলে!
অনুমোদন না থাকায় সাভারের ৪ হাসপাতাল বন্ধ
অনুমোদন না থাকায় সাভারের ৪ হাসপাতাল বন্ধ
উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় চুরির অপবাদে নারীকে লাঠিপেটা
উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় চুরির অপবাদে নারীকে লাঠিপেটা
সাপের বিষ থেকে বাঁচতে ট্যাবলেট, কলকাতায় মিলছে সাফল্য
সাপের বিষ থেকে বাঁচতে ট্যাবলেট, কলকাতায় মিলছে সাফল্য
এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
ইরানের বিরুদ্ধে জলদস্যুতার অভিযোগ গ্রিসের
ইরানের বিরুদ্ধে জলদস্যুতার অভিযোগ গ্রিসের