X
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪
৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

গাজায় ইসরায়েলি হামলায় জাতিসংঘ কর্মী নিহত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
১৪ মে ২০২৪, ১৬:০১আপডেট : ১৪ মে ২০২৪, ১৬:০৮

দক্ষিণ গাজার একটি হাসপাতালে যাওয়ার সময় ইসরায়েলি হামলায় জাতিসংঘের এক কর্মী নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে অপর এক কর্মী। সোমবার (১৩ মে) জাতিসংঘের একটি গাড়িতে করে রাফাহ শহরের কাছে ইউরোপীয় হাসপাতালে যাওয়ার সময় গাড়িটিতে হামলা চালানো হয়। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।

এক বিবৃতিতে জাতিসংঘের মুখপাত্র ফারহান হক জানিয়েছেন, কর্মীর মৃত্যুর খবরে গভীর দু:খ ও শোক প্রকাশ করেছেন মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস। হতাহতের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন তিনি।

জাতিসংঘের কর্মীদের ওপর সব হামলার নিন্দা জানিয়ে পূর্ণ তদন্তের আহ্বান জানিয়েছেন গুতেরেস।

ফারহান হক বলেছেন, নিহত ও আহত কর্মীরা জাতিসংঘের সদস্য। তারা আন্তর্জাতিক কর্মী, ফিলিস্তিনি নয়। সংঘাত শুরুর পর এই প্রথম গাজায় জাতিসংঘের একজন আন্তর্জাতিক কর্মীর মৃত্যু হলো।

এই হামলার জন্য কে দায়ী তা উল্লেখ করেনি জাতিসংঘ। তবে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী বলেছে, প্রাথমিক তদন্তে ইঙ্গিত পাওয়া গেছে যে, গাড়িটি একটি সক্রিয় যুদ্ধ অঞ্চলের ভেতর দিয়ে যাওয়ার সময় হামলার শিকার হয়েছে। গাড়িটির রুট সম্পর্কে তারা সচেতন ছিল না বলেও জানানো হয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ফুটেজে ইউরোপীয় হাসপাতালের বাইরে জাতিসংঘের  লোগো সংবলিত একটি গাড়িতে অসংখ্য বুলেটের ছিদ্র দেখা গেছে।

ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনী (আইডিএফ) নিশ্চিত করেছে, তারা জাতিসংঘের সুরক্ষা ও নিরাপত্তা বিভাগের (ইউএনডিএসএস) কাছ থেকে একটি প্রতিবেদন পেয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জাতিসংঘের দুই কর্মী সোমবার দক্ষিণ গাজার রাফাহ এলাকায় আহত হয়েছে। ঘটনাটি পর্যালোচনা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে আইডিএফ।

আলাদা আরেকটি বিবৃতিতে গুতেরেস বলেছেন, যুদ্ধ শুরুর পর থেকে গাজায় জাতিসংঘের ১৯০ জনের বেশি কর্মী নিহত হয়েছে।

সোমবার নিহত শ্রমিককে জাতিসংঘের প্রথম আন্তর্জাতিক কর্মী বলা হলেও,  এপ্রিলের শুরুতে ইসরায়েলি হামলায় ছয় আন্তর্জাতিক সাহায্য কর্মী এবং আন্তর্জাতিক ত্রাণ সংস্থা-ওয়ার্ল্ড সেন্ট্রাল কিচেনের এক ফিলিস্তিনি কর্মী নিহত হন।

গাজায় হামাস পরিচালিত স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে,গাজায় ইসরায়েলি হামলায় এখন পর্যন্ত ৩৫ হাজার ৯০ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে।

/এস/
সম্পর্কিত
ইসরায়েল-হিজবুল্লাহ উত্তেজনা বাড়ছে, বৃহত্তর সংঘাতের আশঙ্কা
জিম্মিদের কতজন জীবিত তা কেউ জানে না: হামাস নেতা
ইসরায়েলি বিমান হামলায় রাফাহতে দুই জিম্মি নিহত, দাবি হামাসের
সর্বশেষ খবর
অবশেষে বদলি হলেন সাতক্ষীরা পৌরসভার সেই সিইও
অবশেষে বদলি হলেন সাতক্ষীরা পৌরসভার সেই সিইও
কোরবানির বর্জ্য অপসারণে নিয়ন্ত্রণ কক্ষ খুলেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি
কোরবানির বর্জ্য অপসারণে নিয়ন্ত্রণ কক্ষ খুলেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি
রাতে উত্তরের মহাসড়কে যানবাহনের চাপ আরও বেড়েছে
রাতে উত্তরের মহাসড়কে যানবাহনের চাপ আরও বেড়েছে
ঈদে চামড়া ব্যবসায়ীদের নজরদারিতে রাখবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী
ঈদে চামড়া ব্যবসায়ীদের নজরদারিতে রাখবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী
সর্বাধিক পঠিত
ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণিতে মূল্যায়ন হবে যেভাবে
ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণিতে মূল্যায়ন হবে যেভাবে
শ্রমিকদের অবরোধে বন্ধ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক
শ্রমিকদের অবরোধে বন্ধ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক
শেবাগের সমালোচনার জবাবে যা বললেন সাকিব
শেবাগের সমালোচনার জবাবে যা বললেন সাকিব
১৯ বল ব্যাট করে ওমানকে হারালো ইংল্যান্ড
১৯ বল ব্যাট করে ওমানকে হারালো ইংল্যান্ড
সেন্টমার্টিনে খাদ্যসংকট, কক্সবাজার থেকে গেলো পণ্যবোঝাই জাহাজ
সেন্টমার্টিনে খাদ্যসংকট, কক্সবাজার থেকে গেলো পণ্যবোঝাই জাহাজ