এফ-১৬ যুদ্ধবিমানসাড়ে ১২ কোটি ডলারের মার্কিন সামরিক সরঞ্জাম কিনছে পাকিস্তান

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৮:৫১, জুলাই ২৭, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৫৪, জুলাই ২৭, ২০১৯

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বৈঠকের একদিন পরই ইসলামাবাদের কাছে সামরিক সরঞ্জাম বিক্রির কথা জানালো ওয়াশিংটন। শুক্রবার মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, পাকিস্তানের কাছে ১২ কোটি ৫০ লাখ ডলার মূল্যের সামরিক সরঞ্জাম বিক্রি করা হবে। ওই সরঞ্জাম দিয়ে পাকিস্তানের সেনাবাহিনী এফ-১৬ যুদ্ধবিমানের ওপরে সারাক্ষণ নজর রাখতে পারবে।

২০১৮ সালের জানুয়ারিতে পাকিস্তানকে নিরাপত্তার ক্ষেত্রে সহযোগিতা বন্ধের নির্দেশ দিয়েছিলেন ট্রাম্প। সেই নির্দেশ এখনও বহাল আছে। কিন্তু এখন তাদের যে সরঞ্জামগুলি বিক্রি করা হচ্ছে, তাতে এফ-১৬ বিমানগুলির রক্ষণাবেক্ষণে সাহায্য হবে।

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ২০১৮ সালের জানুয়ারিতে পাকিস্তানের ওপরে যে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিলেন  তা এখনও তুলে নেওয়া হয়নি। কিন্তু পাকিস্তানের সঙ্গে দীর্ঘদিনের সম্পর্কের খাতিরে তাদের এমন কিছু সরঞ্জাম বিক্রি করা হচ্ছে যা এফ-১৬ বিমানগুলির রক্ষণাবেক্ষণে সাহায্য করবে।

১৯৮০’র দশকের শুরু থেকেই পাকিস্তান এফ-১৬ যুদ্ধবিমান কিনছে যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে। একটি এফ-১৬ যুদ্ধবিমানের দাম ১৮.৮ মিলিয়ন ডলার এবং প্রতি ঘণ্টা উড়ার পেছনে ব্যয় হয় ২৪ হাজার ডলার। ৩১ ফিট পাখাওয়ালা বিমানটি ঘণ্টা ১৫০০ মাইল গতিতে উড়তে পারে। ২০১৬ সালের এপ্রিলে পাকিস্তান আটটি এফ-১৬ যুদ্ধবিমান গ্রহণ করে যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে।

পাকিস্তান এফ-১৬ বিমানগুলি ভারতের বিরুদ্ধে ব্যবহার করে। গত ফেব্রুয়ারিতে বালাকোটে বিমান হানার পরে এফ-১৬ বিমানগুলি সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে ঢুকে পড়েছিল। সূত্র: পিটিআই।

 

 

/এএ/

লাইভ

টপ