‘নারী যাজক’ নিয়োগের দাবিতে ভ্যাটিকানের সামনে বিক্ষোভ

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৮:২৫, অক্টোবর ২৩, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৩০, অক্টোবর ২৩, ২০১৯

ক্যাথলিক রীতি অনুযায়ী নারীরা চার্চের যাজক হিসেবে নিয়োগ পান না। তবে এই নিয়ম বদলের দাবিতে রোমে সমবেত হয়েছেন আন্দোলনকারীরা।  তাদের দাবি এই নিয়ম বাতিল হলে বিশ্বজুড়ে যাজক সংকটের সমাধান হবে। রক্ষা পাবে ঝুঁকিতে থাকা চার্চগুলো। মঙ্গলবার ভ্যাটিকানের বাইরে বিক্ষোভ করে উইমেন’স অর্ডিনেশন ওয়ার্ল্ডওয়াইড (ওয়াও) গ্রুপের অ্যাকটিভিস্টরা।

নারীদের ভূমিকা নিয়ে অনেক বেশি উদার মনোভাব পোষণ করেন পোপ ফ্রান্সিস। ভ্যাটিকানের গুরুত্বপূর্ণ পদেও নিয়োগ পেয়েছেন নারীরা। তবুও নারী যাজক নিয়োগের বিষয়টি এখনও ট্যাবু হিসেবে থেকে গেছে। সারা বিশ্বের চার্চের নানা ভূমিকায় প্রচুর নারী কাজ করে। কোনও কোনও দেশে পুরুষের চেয়েও তাদের সংখ্যা বেশি। তবে তারা যাজক হতে পারেন না, ভোট দিতে পারেন না ভ্যাটিকানের গুরুত্বপূর্ণ পদে।

সম্প্রতি অ্যামাজন এলাকায় যাজক সংকট মেটাতে বিবাহিত পুরুষদের চার্চে নিয়োগ দেওয়ার অনুমতি দেওয়ার পর মঙ্গলবার বিক্ষোভ করে ওয়াও নামের গ্রুপটি। অ্যাকটিভিস্টদের যুক্তি হলো নারী যাজক নিয়োগ দেওয়া হলে যাজক সংকট সমাধান হবে।

গত কয়েক দশক ধরে যাজক সংকটে পড়েছে বিভিন্ন দেশের চার্চ। বিশেষ করে ইউরোপ ও উত্তর আমেরিকায় এই সংকট প্রবল। সদস্য সংখ্যার কমে যাওয়ার পাশাপাশি যৌন নিপীড়নের অভিযোগও এই সংকটে ভূমিকা রেখেছে। কোনও কোনও ক্ষেত্রে সাব-সাহারা আফ্রিকা ও এশিয়া থেকে যাজক সরিয়ে নিয়ে সংকট পুরণ করা হচ্ছে।

ওয়াও-এর রোম ভিত্তিক প্রতিনিধি কেট ম্যাকএলি বলেন, নারীর ক্ষমতায়ন চার্চ রক্ষা করতে পারে। আমাদের চার্চ আর আমাদের পৃথিবী সংকটে পড়েছে- আর নারীদের অগ্রণী ভূমিকায় ক্ষমতায়ন করলে তা মিটতে পারে। নিজেদের সম্প্রদায়ে এটা তারা ইতিমধ্যে প্রমাণ করেছে। আমরা সমতার কথা বলছি আর এর মধ্যে যাজক হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার কথাও রয়েছে।

ওয়াও-এর যুক্তরাজ্য ইউনিট প্রধান মিরিয়াম দুইগনান বলেন, এটা কেবল প্রত্যেক রবিবার প্রার্থনা করার বিষয় নয়... নারীদের চুপ করিয়ে আর পাশ কাটিয়ে রাখার বিষয়ও।

/জেজে/বিএ/

লাইভ

টপ