আফগানিস্তানে বন্দি বিনিময়ে একমত সরকার ও তালেবান

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২০:০০, নভেম্বর ১২, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:১২, নভেম্বর ১২, ২০১৯

আফগানিস্তানে দেশটির  সরকার ও তালেবানের  মধ্যে বন্দি বিনিময় করা হবে। মঙ্গলবার দুই পক্ষের মধ্যে এই সংক্রান্ত একটি চুক্তি হয়। প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি টেলিভিশনে দেওয়া এক ভাষণে নিজেই একথা নিশ্চিত করেছেন। ধারণা করা হচ্ছে বন্দি বিনিময়ের মধ্য দিয়ে পক্ষের মধ্যে সরাসরি আলোচনার পথ খুলে যাবে।

টুইন টাওয়ারে হামলার পর মার্কিন নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট ন্যাটো আফগানিস্তানে হামলা চালিয়ে তালেবান সরকারকে ক্ষমতা থেকে উৎখাত করে। তখন থেকেই যুক্তরাষ্ট্র ও তাদের মিত্রদের বিরুদ্ধে সশস্ত্র লড়াই করে যাচ্ছে গোষ্ঠীটি। দীর্ঘ ১৮ বছরের যুদ্ধ অবসানের লক্ষ্যে গত বছরের জুন থেকে কাতারের রাজধানী দোহায় মার্কিন কর্মকর্তাদের সঙ্গে ধারাবাহিক আলোচনা শুরু করেন তালেবান কর্মকর্তারা। এরই প্রেক্ষিতে একটি শান্তিচুক্তিতে একমত হয় দুই পক্ষ। তবে সম্প্রতি কাবুলে তালেবান হামলায় এক মার্কিন সেনা নিহতের পর শান্তিচুক্তি বাতিলের ঘোষণা দিয়ে আলোচনায় ইতি টানার ঘোষণা দেন ট্রাম্প।

সর্বশেষ তালেবানের সঙ্গে করা চুক্তির আওতায় আফগান সরকার তালেবানের নেতা আনাস হাক্কানি ও অন্য দুই শীর্ষ পর্যায়ের কমান্ডারকে তালেবানের কাছে হস্তান্তর করবে। বিনিময়ে যুক্তরাষ্ট্র ও অস্ট্রেলিয়ার দুজন অধ্যাপককে মুক্তি দেবে তালেবান।

আফগান প্রেসিডেন্ট বলেন, তালেবানের সঙ্গে সরাসরি আলোচনায় বসার পথ তৈরির জন্য আফগান সরকার তালেবান বন্দীদেরকে বিনিময় করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তালেবান বন্দীদের বিনিময়ে দুই বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাপক মুক্তি পাবেন।  

২০১৬ সালে আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে আমেরিকান বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আমেরিকা ও অস্ট্রেলিয়ার দুই অধ্যাপককে অপহরণ করে তালেবান। সম্প্রতি মার্কিন সরকার ও তালেবানের মধ্যে চলে আসা আলোচনা ভেঙে পড়ার পর আফগান সরকার ও তালেবানের মধ্যে বন্দি বিনিময় চুক্তি হলো।

/এমএইচ/

লাইভ

টপ