মালিতে সেনাবাহিনী ও সশস্ত্র গোষ্ঠীর সংঘর্ষে নিহত ৪১

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২০:১৫, নভেম্বর ১৯, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:১৭, নভেম্বর ১৯, ২০১৯

মালির পূর্বাঞ্চলে সেনাবাহনী ও সশস্ত্র গোষ্ঠীর মধ্যকার ব্যাপক সংঘর্ষে ৪১ জন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে ২৪ জন সেনাসদস্য রয়েছেন। সামরিক সূত্রের বরাত দিয়ে এই তথ্য জানিয়েছে তুর্কি বার্তা সংস্থা আনাদোলু এজেন্সি।

মালির উত্তরাঞ্চল বহুদিন ধরেই অস্থিতিশীল। ২০১২ সালে সেখানকার বহু এলাকা দখল করে নেয় আল-কায়েদাপন্থী জঙ্গিরা। এতে করে ওই এলাকার বিদ্রোহী গোষ্ঠী তুয়ারেগ কোণঠাসা হয়ে পড়ে। ২০১৩ সালের জানুয়ারিতে ফ্রান্সের নেতৃত্বাধীন পাঁচ জাতির বাহিনী (জি-ফাইভ সাহেল নামে পরিচিত) অভিযান চালিয়ে জঙ্গিদের উৎখাত করলেও পরে ওই অঞ্চলের জন্য হুমকি হয়ে ওঠে জঙ্গিরা।

জানা যায়, মালির উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় তাবানকোর্ট শহরের কাছে একটি টহল দল সোমবার হামলার শিকার হওয়ায় মালি ও নাইজার বাহিনী সেখানে যৌথ অভিযান চালায়।

সামরিক সূত্র জানায়, এ অভিযানে মোট ২৪ সৈন্য নিহত ও ২৯ জন আহত হয়। অপরদিকে অভিযানে ১৭ সন্ত্রাসী নিহত হয়। গ্রেফতার করা হয় শতাধিক সন্দেহভাজনকে। গ্রেফতারকৃতরা নাইজার সৈন্যদের কাছে বন্দী রয়েছে। এর আগে এক বিবৃতিতে সামরিক বাহিনী জানায়, ফরাসি ও নাইজার বাহিনী পাল্টা অভিযানে অংশ নিয়েছে। সোমবারের অভিযান ছিল সামরিক বাহিনীর জন্য বড় ধরনের আরেকটি ক্ষতি।

২০১২ সালে মালির উত্তরাঞ্চল জঙ্গিদের হাতে চলে যায়। পরে ফরাসি নেতৃত্বাধীন সামরিক হস্তক্ষেপে জঙ্গিরা সেখান থেকে পালিয়ে যেতে বাধ্য হয়।

বিদেশ ডেস্ক

/এমএইচ/

লাইভ

টপ