সৌদি আরবের সঙ্গে বিরোধ নিরসনে ‘সামান্য অগ্রগতি’: কাতার

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২১:০৬, ডিসেম্বর ১৫, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:১২, ডিসেম্বর ১৫, ২০১৯

সৌদি আরবের সঙ্গে চলমান সংকট সমাধানে সামান্য অগ্রগতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ বিন আব্দুল রহমান আল সানি। সম্প্রতি সৌদি আরবে অনুষ্ঠিত উপসাগরীয় দেশগুলোর এক সম্মেলনে কাতারের প্রধানমন্ত্রী আবদুল্লাহ বিন নাসের বিন খলিফা আল থানির যোগদানের দুইদিন পর শনিবার (১৪ ডিসেম্বর) এই মন্তব্য করেন তিনি।

২০১৭ সালের জুনে উপসাগরীয় দেশ কাতারের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করে সৌদি আরব, মিসর, বাহরাইন ও সংযুক্ত আরব আমিরাত। দোহার বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদ ও মুসলিম ব্রাদারহুডের মতো বিরোধী রাজনৈতিক দলকে সমর্থন দেওয়ার অভিযোগ এনে দেশটির ওপর স্থল, নৌ ও আকাশ পথে অবরোধ আরোপ করে দেশগুলো। তবে এই অভিযোগকে ভিত্তিহীন বলে অস্বীকার করে দোহা।

শনিবার সাংবাদিকরা কাতারি পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে সৌদি আরবের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নের ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘খুব সামান্যই অগ্রগতি হয়েছে।’

এর আগে চলতি মাসের গোড়ার দিকে কাতারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, কূটনৈতিক সংকট সমাধানের ব্যাপারে সৌদি আরবের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। এর ফলে সম্পর্ক অচলাবস্থা থেকে উত্তরণের দিকে যাচ্ছে।

গত মঙ্গলবার উপসাগরীয় দেশগুলোর জোট গাল্ফ কোঅপারেশন কাউন্সিলের (জিসিসি) ৩৯ তম সম্মেলনে যোগ দিয়েছেন কাতারের প্রধানমন্ত্রী আবদুল্লাহ বিন নাসের। রিয়াদ বিমানবন্দরে তাকে স্বাগত জানান সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ। প্রধানমন্ত্রীর এই সফরের ফলে চলমান সংকট সমাধানের বিষয়টি আলোচনায় আসে। তবে তেমনটা সেখানে হয়নি।

জিসিসির সম্মেলনের পূর্বে সেখানে রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেছেন উপসাগরীয় দেশগুলোর নেতারা। তারা আঞ্চলিক সামরিক ও নিরাপত্তা সহযোগিতার ব্যাপারে গুরুত্বারোপ করেছেন। তবে কাতার সংকট নিয়ে সেখানে কোনও ধরনের প্রকাশ্য মন্তব্য পাওয়া যায়নি। তথ্য: রয়টার্স

 

/এইচকে/এএ/

লাইভ

টপ