হুমকি মোকাবিলায় উন্নত অস্ত্র ব্যবহারে প্রস্তুত ইরান: প্রতিরক্ষা মন্ত্রী

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০৭:০৬, জানুয়ারি ২৪, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:০৯, জানুয়ারি ২৫, ২০২০

যে কোনও ধরনের আগ্রাসন মোকাবিলার প্রয়োজনীয় শক্তি ও সাহস ইরানের রয়েছে বলে সতর্ক করেছেন দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রী জেনারেল আমির হাতামি। বৃহস্পতিবার তেহরানে সশস্ত্র বাহিনীর এক অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, যে কোনও মাত্রার এবং যে কোনও হুমকির বিরুদ্ধে লড়াই করতে ইরানের উন্নত প্রতিরক্ষামূলক অস্ত্র প্রস্তুত রয়েছে।ইরানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী জেনারেল আমির হাতামি

গত ৩ জানুয়ারি বাগদাদ বিমানবন্দরে ড্রোন হামলায় নিহত হন ইরানের কুদস বাহিনীর প্রধান জেনারেল কাসেম সোলাইমানি। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্দেশে ওই হামলা চালায় মার্কিন সেনারা। এই হামলার জবাবে ইরাকের মার্কিন সেনা অবস্থানে হামলা চালায় ইরান।

ইরানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী আমির হাতামি বলেন জনগণের দাবি অনুযায়ী ইরাকের মার্কিন ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানো হয়েছে। তিনি বলেন, ওই ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানো না হলে যুক্তরাষ্ট্র আরও নিষ্ঠুর হতো এবং এই ধরণের অপরাধ আবারও করতো। ইরানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘ওই হামলা ছিলো যেমন সময়মতো, তেমনি উন্নত এবং নিখুঁত। ক্ষেপণাস্ত্র একেবারে সুনির্দিষ্ট লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হেনেছে।’  ইরানের সশস্ত্র বাহিনীর পক্ষ থেকে ‘আমেরিকার গালে দেয়া এই থাপ্পড়’ ইতিহাসে স্থান করে নেবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

ইরানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী জেনারেল আমির হাতামি বলেন, ‘অভ্যন্তরীণ চাহিদার কথা মাথায় রেখেই ইরান সামরিক সরঞ্জামাদির নকশা প্রস্তুত করেছে আর সেভাবেই এসব অস্ত্র ও আনুষঙ্গিক সামগ্রি উৎপাদন করেছে।’

/এইচকে/জেজে/

লাইভ

টপ