ইরানের হামলায় মাথায় আঘাত পেয়েছেন ৩৪ মার্কিন সেনা: পেন্টাগন

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০৯:১৩, জানুয়ারি ২৫, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৫:০৬, জানুয়ারি ২৫, ২০২০

ইরাকে মার্কিন ঘাঁটিতে ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় যুক্তরাষ্ট্রের ৩৪ সেনা মস্তিষ্কে আঘাতজনিত সমস্যার চিকিৎসা নিয়েছেন বলে জানিয়েছে দেশটির প্রতিরক্ষা সদর দফতর পেন্টাগন। শুক্রবার (২৪ জানুয়ারি) প্রতিরক্ষা বিভাগের মুখপাত্র জোনাথন হোফম্যান জানিয়েছেন, ১৭ সেনা এখনও চিকিৎসকের সার্বিক পর্যবেক্ষণে রয়েছেন। 

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্দেশে গত ৩ জানুয়ারি ইরাকের রাজধানী বাগদাদে বিমান হামলা চালিয়ে ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ডের (আইআরজিসি) কুদস বাহিনীর কমান্ডার জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যা করা হয়। এই হামলার ‘মারাত্মক প্রতিশোধ’ হিসেবে বুধবার (৮ জানুয়ারি) সকালে ইরাকের মার্কিন বিমানঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় তেহরান। সেই সময় ইরানের পক্ষ থেকে মার্কিন সেনা হতাহতের কথা বলা হলেও প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প সেই দাবি প্রত্যাখ্যান করেছিলেন।

তবে গত সপ্তাহে মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতর জানিয়েছে, ওই হামলার কারণে আঘাতপ্রাপ্ত ১১ জন এখনও চিকিৎসা নিচ্ছেন। এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে চলতি সপ্তাহে সুইজারল্যান্ডের দাভোসে বৈশ্বিক অর্থনৈতিক ফোরামে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প সাংবাদিকদের উদ্দেশে বলেন, ‘আমি শুনেছি তাদের মাথাব্যথা এবং অন্য কিছু সমস্যা রয়েছে। তবে আমি এটা বলতে পারি যে, এগুলো ততটা গুরুতর সমস্যা নয়।’ পেন্টাগন অবশ্য নিশ্চিত করেছে, ইরাকে আইন আল আসাদ ঘাঁটিতে ইরানের ওই হামলায় কোনও মার্কিন নাগরিকের মৃত্যু হয়নি।

শুক্রবার প্রতিরক্ষা বিভাগের মুখপাত্র জোনাথন হোফম্যান সাংবাদিকদের বলেন, আঘাতপ্রাপ্ত সেনাদের মধ্যে আটজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে ফেরত পাঠানো হয়েছে। এছাড়া আরও নয়জন জার্মানিতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। সামরিক কর্মকর্তারা নিশ্চিত করেছেন, ‘ইরাকে ১৬ সেনা এবং কুয়েতে এক সেনা চিকিৎসা নিয়েছেন। এই ১৭ জন চিকিৎসা শেষে স্বাভাবিক কাজে ফিরেছেন।’

/এইচকে/বিএ/

লাইভ

টপ