আফগানিস্তানে মার্কিন বিমান বিধ্বস্ত হয়েছে: তালেবান

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০১:০৯, জানুয়ারি ২৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০১:১৪, জানুয়ারি ২৮, ২০২০

আফগানিস্তানের গজনি প্রদেশে যুক্তরাষ্ট্রের একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়েছে বলে দাবি করেছে দেশটির সশস্ত্র গোষ্ঠী তালেবান। সোমবার (২৭ জানুয়ারি) ওই সশস্ত্র গোষ্ঠী নিয়ন্ত্রিত এলাকায় বিমানটি বিধ্বস্ত হওয়ার কয়েক ঘণ্টা পর এক বিবৃতিতে এই দাবি করে তালেবান। পরে এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছে মার্কিন বাহিনী। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার এক প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, গজনির দেহ-ইয়াক জেলায় একটি বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে। ওই স্থানে তালেবানদের শক্তিশালী বিচরণ রয়েছে। তবে বিধ্বস্তের কারণ কিংবা হতাহতের খবর এখনও পাওয়া যায়নি। কেউ এই বিধ্বস্তের জন্য দায়ও স্বীকার করেনি। গজনির প্রাদেশিক গর্ভনর ওয়াহিউল্লাহ কালিমজাই বেসরকারি সম্প্রচারমাধ্যম টোলোনিউজকে জানিয়েছেন, ‘এতে হতাহতের সংখ্যা বা বিমানটির নামের ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট কোন তথ্য পাওয়া যায়নি।’ প্রথমে বিমানটি আফগান এয়ারলাইন্স আরিয়ানার মালিকানাধীন বলে জানায় স্থানীয় কর্তৃপক্ষ। তবে আরিয়ানা এয়ারলাইন্স সংস্থাটি ওই খবর নাকচ করে দিয়েছে জানিয়েছে, তাদের সবগুলো বিমানই যথাযথভাবে গন্তব্যে পৌঁছেছে। এরপরে আফগানিস্তানের বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে যে, কোনও বেসামরিক বিমান বিধ্বস্ত হয়নি।

তালেবানের মুখপাত্র জাবিহউল্লাহ মুজাহিদ দাবি করেছেন, বিমান বিধ্বস্ত হয়ে মার্কিন বাহিনীর ‘অনেক’ সেনা এবং ওই বিমানের সব ক্রু নিহত হয়েছেন। যাইহোক, ওই সশস্ত্র গোষ্ঠীটি প্রায় হতাহতের সংখ্যা বাড়িয়ে বলে থাকে। এ বিষয়ে আফগানিস্তানে নিয়োজিত মার্কিন বাহিনীর মুখপাত্র কর্নেল সনি লেগেট বলেছেন, গজনি প্রদেশে বোম্বার্ডিয়ার ই-১১এ নামের একটি সামরিক বিমান বিধ্বস্ত হয়েছে। এই দুর্ঘটনার কারণ তদন্ত চলছে।

উল্লেখ্য, বোম্বার্ডিয়ার ই-১১এ হচ্ছে মার্কিন বিমান বাহিনীর বৈদ্যুতিক নজরদারি বিমান।

/এইচকে/

লাইভ

টপ