ইরাকে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক উপস্থিতি চায় সৌদি আরব

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২৩:৩১, জানুয়ারি ২৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:৩৪, জানুয়ারি ২৮, ২০২০

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ইরাকে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক উপস্থিতি দেখতে চায় সৌদি আরব। সোমবার রাতে মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন-এর সঙ্গে আলাপকালে নিজ দেশের এমন অবস্থানের কথা জানিয়েছেন সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফয়সাল বিন ফারহান। তিনি বলেন, ইরাক থেকে মার্কিন বাহিনীর প্রস্থান অঞ্চলটিকে কম সুরক্ষিত অঞ্চলে পরিণত করবে।
জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস-কে এ অঞ্চলে মার্কিন সামরিক উপস্থিতি গুরুত্বের কথাো তুলে ধরেন তিনি।

সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর পুনরুত্থান মোকাবিলায় এখনও ইরাকে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক উপস্থিতিকে মৌলিক বিষয় হিসেবে আখ্যায়িত করেন ফয়সাল বিন ফারহান।

২০২০ সালের ৩ জানুয়ারি ইরাকে বিমান হামলা চালিয়ে ইরানের প্রভাবশালী কুদস ফোর্সের কমান্ডার কাসেম সোলাইমানিকে হত্যা করে যুক্তরাষ্ট্র। এ নিয়ে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে বিদেশি সেনাদের ইরাক থেকে সরিয়ে নিতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহ্বান জানায় তেহরানের মিত্র বাগদাদ। বিদেশি সেনা বলতে ইরাকে মোতায়েনকৃত পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটো-র সদস্যদের বোঝানো হয়েছে।

গত ১০ জানুয়ারি ইরাকের প্রধানমন্ত্রী আদেল আবদুল-মাহদী সেনা প্রত্যাহারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে ইরাকে প্রতিনিধি পাঠানোর জন্য যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহ্বান জানান।

/এমপি/

লাইভ

টপ