আফগানিস্তানে তালেবান হামলায় ২৯ নিরাপত্তা কর্মকর্তা নিহত

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২৩:৫৩, জানুয়ারি ২৯, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১০:১৬, জানুয়ারি ৩০, ২০২০

আফগানিস্তানের কুন্দুজ ও বাঘলান প্রদেশে সশস্ত্র গোষ্ঠী তালেবানের হামলায় অন্তত ২৯ জন নিরাপত্তা কর্মকর্তা নিহত হয়েছেন। গত সপ্তাহের শেষের দিকে ওই গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে সরকারি অভিযানের পর গত সোম ও মঙ্গলবার রাতে নিরাপত্তা চৌকি ও পুলিশ স্টেশনকে লক্ষ্য করে ওই হামলা চালায় তারা। 

যুক্তরাষ্ট্রের টুইন টাওয়ারে হামলার পর ২০০১ সালে মার্কিন নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট ন্যাটো আফগানিস্তানে হামলা চালিয়ে তালেবান সরকারকে ক্ষমতা থেকে উৎখাত করে। তখন থেকেই যুক্তরাষ্ট্র ও তাদের মিত্রদের বিরুদ্ধে সশস্ত্র লড়াই করে যাচ্ছে গোষ্ঠীটি। দীর্ঘ ১৮ বছরের যুদ্ধ অবসানের লক্ষ্যে ২০১৮ সালের জুন থেকে কাতারের রাজধানী দোহায় মার্কিন কর্মকর্তাদের সঙ্গে ধারাবাহিক আলোচনা শুরু করলেও পরে তা থেমে যায়। পরে আবারও নতুন করে শান্তি আলোচনা শুরু হলেও আফগান সরকারকে ‘যুক্তরাষ্ট্রের পুতুল’আখ্যা দিয়ে দেশটির সেনা ঘাঁটি ও নিরাপত্তা তল্লাশি চৌকিতে হামলা বাড়িয়ে দেয় তালেবান।

সরকারি সূত্র জানিয়েছে, মঙ্গলবার রাতে উত্তরাঞ্চলীয় কুন্দুজ প্রদেশের একটি নিরাপত্তা চৌকিতে হামলায় চালিয়ে সেনাবাহিনীর ১৫ সদস্যকে হত্যা করে তালেবান। এর একদিন আগে বাঘলান প্রদেশের রাজধানী পুল-ই-কর্মির একটি পুলিশ স্টেশন হামলায় চালায় তারা। এতে অন্তত ১৪ পুলিশ সদস্য নিহত হয়।

ওই দুই হামলার দায় স্বীকার করেছে তালেবান। তাদের মুখপাত্র জবিউল্লাহ মুজাহিদ দাবি করেছেন, কুন্দুজে হামলায় আফগান বাহিনীর ৩৫ সদস্য এবং বাঘলানে ১৭ জন নিহত হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে শান্তি আলোচনার মধ্যস্থতাকারীদের ঘনিষ্ঠ সূত্র জানিয়েছে, মার্কিন বাহিনীর বিরুদ্ধে হামলা বন্ধ ও আফগান সরকারের স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়ের বিরুদ্ধে হামলা ‘হ্রাস’ করার বিষয়ে তালেবান সম্মত হলেও সম্প্রতি সরকারি বাহিনীর ওপর হামলার পরিধি বাড়িয়েছে সশস্ত্র গোষ্ঠীটি।

/এইচকে/বিএ/এমওএফ/

লাইভ

টপ