শরিয়ত বয়াতির শর্তহীন মুক্তি চাইলো অ্যামনেস্টি

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৮:৫১, ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৫২, ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০২০

যুক্তরাজ্যভিত্তিক আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল ধর্ম অবমাননার অভিযোগে গ্রেফতার হওয়া লোক শিল্পী শরিয়ত বয়াতকে মুক্তির আহ্বান জানিয়েছে। ১৪ ফেব্রুয়ারি সংবাদমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে সংস্থাটির রিজিওনাল ক্যাম্পেইনার (দক্ষিণ এশিয়া) সাদ হাম্মাদি এই বাউল শিল্পীকে অবিলম্বে ও শর্তহীন মুক্তি দেওয়ার আহ্বান জানান।

অ্যামনেস্টির বিবৃতিতে বলা হয়েছে, কোরানে গান নিষিদ্ধ করা হয়নি বলার কারণে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে শরিয়ত বয়াতিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মতপ্রকাশের স্বাধীনতার অধিকার চর্চা করায় গ্রেফতার করা এই গায়ককে অবিলম্বে ও শর্তহীন মুক্তি দিতে হবে।

সাদ হাম্মাদি বলেছেন, শরিয়ত বয়াতিতে গ্রেফতার ও পরে বন্দি করে রাখা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মাধ্যমে বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক বাধ্যবাধকতা কীভাবে লঙ্ঘন হচ্ছে সেটির উদাহরণ। শরিয়ত বয়াতির কথাগুলো হয়ত আক্রমণাত্মক কিন্তু ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতে অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করা মতপ্রকাশের স্বাধীনতার অধিকারের লঙ্ঘন।

সাদ হাম্মাদি আরও বলেছেন, এমন গ্রেফতারের ঘটনায় স্বীকৃত অধিকার চর্চাকে অনুৎসাহিত করা হবে। সাংবাদিক বা যে কোনও ব্যক্তি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ভয়ে ভিন্নমত প্রকাশে আতঙ্কবোধ করবেন। শরিয়ত বয়াতি ইসলাম বা মুসলিম সম্প্রদায় নয়, মাওলানাদের একাংশকে আক্রমণ করেছেন। গান কোনও অপরাধ নয় বলে অবস্থান জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, আমরা আশা করি সাংবাদিক ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে আইনটি পর্যালোচনার যে প্রতিশ্রুতি বাংলাদেশ সরকার দিয়েছে তা রক্ষা করবে। যাতে করে নাগরিক ও রাজনৈতিক অধিকার সম্পর্কিত আন্তর্জাতিক চুক্তিসহ আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইনের সঙ্গে তা সামঞ্জস্যপূর্ণ হয়।

উল্লেখ্য, মহানবী (সা.) ও ইসলাম ধর্ম নিয়ে কটূক্তি করার অভিযোগে ১১ জানুয়ারি ময়মনসিংহে শরিয়ত বয়াতিকে (৩৫) গ্রেফতার করে পুলিশ। রবিবার (১২ জানুয়ারি) তাকে তিন দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়। ২৯ জানুয়ারি জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মোহাম্মদ শওকত আলী চৌধুরী তার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেন। 

/এএ/

লাইভ

টপ