পুঁজিবাদের অবসান চান ড. ইউনূস

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২১:২২, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:৪২, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২০

বিদ্যমান পুঁজিবাদী বিশ্ব ব্যবস্থার অবসান চান নোবেল বিজয়ী অর্থনীতিবিদ ড. ইউনূস। সম্প্রতি লিংকডইন-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে নিজের এমন চিন্তাভাবনার কথা জানান তিনি। এতে তিনি বলেন, আমাদের অর্থনীতি এবং অন্যান্য নিয়ম-কানুন আমরা একটি সিস্টেমের (পুঁজিবাদী ব্যবস্থা) মধ্যে ডিজাইন করেছি। কিন্তু যিনি আমাদের জন্য এই ডিজাইন তৈরি করেছেন তিনি ঈশ্বর নন।
ডক্টর ইউনূস বলেন, আমরা এই সিস্টেম পরিবর্তন করতে পারি না; বিষয়টি এমন নয়। এটি কোনও পবিত্র গ্রন্থ নয়।

টেবিলে থাকা আইফোনের প্রতি নির্দেশ করে তিনি বলেন, আমরা এই জিনিসটি তৈরি করেছি। এটি খুব জটিল জিনিস, তবে আমরা এটি নকশা করেছি। কারণ, আমরা ভেবেছিলাম এটি মানুষের জন্য উপকারী হবে। তবে আমরা অর্থনীতিকে স্পর্শ করি না। কেন? আমরা এই সিস্টেমটিও ডিজাইন করতে পারি। আমাদের এর পবিত্রতা চ্যালেঞ্জ করতে হবে। পুরো দুনিয়া বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ছে। তাই আমাদের এই ডিজাইন বা নকশা তৈরির কাজ শুরু করা দরকার।

তিনি বলেন, আমাদের বাস্তব জীবনে এই নতুন নকশাগুলো চেষ্টা করে দেখতে হবে। আমাদের সামাজিক ব্যবসা, শিল্প উদ্যোগের মতো বিষয়গুলো নিয়ে কথা বলা উচিত।

ডক্টর ইউনূস বলেন, প্রত্যেকে যদি উদ্যোক্তা হয় তবে কেউ অন্য কারও জন্য কাজ করবে না। এই সিস্টেমটিকে আমরা ভিন্নভাবে সাজাতে পারি। স্কুলগুলোতে শিশুদের একটি বিকল্প দেওয়া হবে। তাকে বলা হবে, তুমি হয় চাকরি করতে পারো কিংবা নিজেই একজন উদ্যোক্তা হতে পারো। এটা তোমার ব্যাপার। কিন্তু তোমাকে চাকরিই করতে হবে, এমনটা নির্ধারণ করে দেওয়া ভুল।

তিনি বলেন, টিভি অন করেই আমরা ব্রাজিল ও অস্ট্রেলিয়াকে জ্বলতে দেখছি এবং ভাবছি, ‘ওহ, এটা তো আমাদের নয়, এসব তাদের বিষয়।’ আমরা এর বৈশ্বিক মাত্রা ভুলে যাই। প্রতিটি জায়গা, প্রতিটি একক ব্যক্তি পরস্পরের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত। পুরো দুনিয়া ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। এমনকি আমাদের গ্রহটি নিজেই এমন ঝুঁকিতে রয়েছে। এক্ষেত্রে সংবাদমাধ্যম এবং আমাদের নেতাদের দায়বদ্ধতা রয়েছে।

সম্প্রতি জার্মানির মিউনিখে ডিজিটাল প্রযুক্তি সম্মেলনেও ডক্টর ইউনূসের একটি বক্তব্য আলোচিত হয়। সেখানে তিনি বলেছিলেন, আপনি দ্রুত এই সিদ্ধান্তে আসতে পারেন যে পৃথিবী বিপর্যয়ের পথে রয়েছে। আমরা আমাদের নাতি-নাতনিদের ভবিষ্যৎ দেখতে পাচ্ছি না। এটা না পরিবেশের ক্ষেত্রে আর না অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে। এ কারণেই আমরা জলবায়ু সংকট এবং আমাদের অর্থনৈতিক ব্যবস্থার প্রয়োজনীয় পুনর্নির্মাণ উভয়ের বিষয়েই কথা বলছি।

লিংকডইনে প্রকাশিত সাক্ষাৎকারেও জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে কথা বলেন ডক্টর ইউনূস। তিনি বলেন, যখন কোনও বড় সংকট দেখা দেয় তখন অনেক লোক মরিয়া হয়ে কাজ করার নির্দেশ দেন। আমাদের এটিই করতে হবে। তবে আমাদের এখনও মরিয়া বলে মনে হয় না।

শান্তিতে নোবেল বিজয়ী এই অর্থনীতিবিদ বলেন, আমরা এখনও কথা বলছি এবং হাসছি। যেন আগামীকাল একই রকম হবে এবং পরের বছরটিও একই রকম হবে। যেমন কিছুই হতে যাচ্ছে না। অথচ এটি (জলবায়ু পরিবর্তনের ভয়াবহ প্রভাব) এখনই ঘটে চলছে। আমরা যদি এখন কিছু করি তাহলে হয়তো এটিকে ঘুরিয়ে দিতে পারি। অন্যথায় আমাদের জীবন দিয়ে এর মূল্য দিতে হবে।

/এমপি/এমওএফ/

লাইভ

টপ