ভারতে সিএএ'র পক্ষে রাষ্ট্রপতিকে সাবেক বিচারপতি ও সেনা কর্মকর্তাদের চিঠি

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০৯:১৯, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:৫৪, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২০

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের (সিএএ) বিরুদ্ধে ভারত জুড়ে চলা বিক্ষোভের প্রতিবাদ জানিয়ে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দকে চিঠি দিয়েছেন দেশটির দেড়শোরও বেশি প্রখ্যাত ব্যক্তি। সোমবার পাঠানো এই চিঠি দাতাদের মধ্যে রয়েছেন সাবেক বিচারপতি, আমলা, সেনা কর্মকর্তা ও শিক্ষাবিদ। ওই চিঠিতে বলা হয়েছে, জাতির ক্ষতি করতে সিএএ, জাতীয় জনসংখ্যা তালিকা (এনপিআর) ও জাতীয় নাগরিক তালিকার (এনআরসি) বিরুদ্ধে মিথ্যা ও উদ্দেশ্যমূলক প্রচারণা শুরু করা হয়েছে। এই বিক্ষোভের নেপথ্য ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে ওই চিঠিতে।

গত বছরের ডিসেম্বরে ভারতের নাগরিকত্ব আইনে বিতর্কিত সংশোধনী আনার পর বিক্ষোভ শুরু হয়। এতে অন্তত ২৫ জন নিহত ও বহু মানুষ আহত হয়। সম্প্রতি সহিংসতার মাত্রা কমে এলেও তীব্র প্রতিবাদ অব্যাহত রয়েছে। গত সপ্তাহে মুম্বাইয়ের ঐতিহাসিক আজাদ ময়দানে বিক্ষোভ সমাবেশে জড়ো হন লাখ লাখ মানুষ। সিএএ,এনআরসি ও এনপিআর-এর বিরুদ্ধে এই বিক্ষোভে অংশগ্রহণকারীদের বড় একটি অংশ ছিলেন নারী।

সোমবার ওই বিতর্কিত আইনের পক্ষ নিয়ে রাষ্ট্রপতিকে দেওয়া চিঠিতে স্বাক্ষরকারীদের মধ্যে রয়েছেন বিভিন্ন উচ্চ আদালতের ১১ জন সাবেক বিচারপতি, ২৪ জন অবসরপ্রাপ্ত প্রথম শ্রেণীর সরকারি কর্মকর্তা, ১১ জন সাবেক ভারতীয় ফরেন সার্ভিস কর্মকর্তা, ১৬ জন অবসরপ্রাপ্ত সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা ও ১৮ জন সাবেক লেফটেন্যান্ট জেনারেল।

রাষ্ট্রপতিকে লেখা ওই চিঠি বলা হয়েছে, দেশজুড়ে ভীতি ছড়ানো হচ্ছে। সমন্বিতভাবে প্রচার চালিয়ে সহিংস বিক্ষোভ করা হচ্ছে যাতে সরকারি ও বেসরকারি সম্পত্তি ধ্বংস হচ্ছে বলেও অভিযোগ করা হয়েছে ওই চিঠিতে।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ, আফগানিস্তান ও পাকিস্তান থেকে নিপীড়নের মুখে ভারতে পালিয়ে যাওয়া হিন্দু, বৌদ্ধ, শিখ, জৈন, পার্সি ও খ্রিস্টানদের নাগরিকত্ব নিশ্চিতে গত বছরের ডিসেম্বরে আইন সংশোধন করেছে ভারত। আইনটিকে বৈষম্যমূলক ও সংবিধান পরিপন্থী আখ্যা দিয়ে বিক্ষোভ চলছে। বিক্ষোভকারীদের আশঙ্কা, সিএএ বাস্তবায়নের পর এনপিআর ও এনআরসি বাস্তবায়ন করে সরকার নথি হারিয়ে ফেলা দরিদ্র জনগোষ্ঠীকে লক্ষ্যবস্তু বানাবে।

/জেজে/বিএ/

লাইভ

টপ