যুক্তরাজ্যে বোমা হামলার পরিকল্পনা, আইএস জঙ্গির স্বীকারোক্তি

Send
অদিতি খান্না, যুক্তরাজ্য
প্রকাশিত : ০০:৩৬, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০১:৪০, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০

যুক্তরাজ্যে সন্ত্রাসবাদী পরিকল্পনার দায়ে জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস-এর এক নারী সদস্যকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে। ওই নারী লন্ডনের সেন্ট পলস ক্যাথেড্রালে বোমা হামলার পরিকল্পনার সঙ্গে যুক্ত ছিল।
৩৬ বছরের ওই নারীর আগের নাম ছিল মিশেল রামসডেন। ইসলামে ধর্মান্তরিত হওয়ার পর নতুন নাম নেন সাফিয়া আমিরা শেখ নেন। গত বছরের অক্টোবরে সন্ত্রাসবাদবিরোধী কর্মকর্তাদের এক আন্ডারকভার অভিযানের পর তাকে গ্রেফতার করা হয়। ছদ্মবেশী ওই অভিযান চলাকালে কর্মকর্তাদের কাছ থেকে বোমা চেয়েছিল ওই নারী।

বৃহস্পতিবার লন্ডনের ওল্ড বেইলি আদালতে এ সংক্রান্ত শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় তিনি সন্ত্রাসবাদ বিষয়ক দুই অপরাধের কথা স্বীকার করেছেন। পরে আদালত তাকে রিমান্ডে পাঠান এবং আগামী ১১ মে একই আদালতে পুনরায় হাজির করার নির্দেশ দেন।

তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগে পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্ত নারী বিস্ফোরক তৈরিতে সহায়তা করতে সক্ষম বলে মনে করেন এমন ব্যক্তির সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল। এছাড়া তার সন্ত্রাসী হামলা চালানোর পরিকল্পনা ছিল। পরিকল্পনার অংশ হিসেবে সে লন্ডনে ভ্রমণ করেছে এবং একটি হোটেলে অবস্থান করেছে। বিস্ফোরক যন্ত্রের লক্ষ্য হিসেবে ওই হোটেলটিকে বেছে নিয়েছে। নিরাপত্তার জন্য এবং দ্বিতীয় বিস্ফোরক যন্ত্র লাগানোর জন্য উপযুক্ত স্থান হিসেবে সেন্ট পলস ক্যাথেড্রালকে বাছাই করেছে।

২০১৯ সালের অক্টোবরে গ্রেফতারের আগে দুই ছদ্মবেশী গোয়েন্দা কর্মকর্তার সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে তোলে সাফিয়া। তার ধারণা ছিল ওই কর্মকর্তারা আসলে একটি উগ্রপন্থী গোষ্ঠীর সদস্য দম্পতি। সে অনুযায়ী তাদের সঙ্গে টেলিগ্রাম অ্যাপের মাধ্যমে যোগাযোগ সম্পন্ন করে সাফিয়া। ওই দুই কর্মকর্তার একজনকে টেলিগ্রামে সেন্ট পলস ক্যাথেড্রালের একটি ছবি পাঠায় এবং এ ধরনের একটি স্থানে বিপুল সংখ্যক লোকজনকে হত্যার আগ্রহ প্রকাশ করে।

২০১৭ সালে মুসলিম প্রতিবেশীদের দ্বারা মুগ্ধ হয়ে ইসলাম গ্রহণ করেন ওই নারী। কিন্তু আইএস-এর উগ্রপন্থী মতাদর্শ তাকে বিপথে চালিত করে।

/এমপি/

লাইভ

টপ