দলীয় প্রধান হিসেবে মাহাথিরের পদত্যাগপত্র প্রত্যাখ্যান

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০২:২০, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১০:১৭, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২০

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ ক্ষমতাসীন জোটের শরিক দল বারসাতুর চেয়ারম্যানের পদ থেকে সরে যেতে পদত্যাগপত্র দাখিল করলেও তা গ্রহণ করা হয়নি। দলটির সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী কাউন্সিল ওই পদত্যাগপত্র প্রত্যাখ্যান করেছে। সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) রাতে দলের বিশেষ বৈঠক শেষে একথা জানিয়েছেন কাউন্সিল সদস্য মোহাম্মদ রফিক নাইজামহিদিন। মালয়েশীয় সংবাদমাধ্যম দ্য স্টার জানিয়েছে, মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) মাহাথিরের সঙ্গে বৈঠক আয়োজনের চেষ্টা করছেন দলটির নেতারা।মালয়েশিয়ার অন্তর্বর্তী প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব চালিয়ে যাবেন মাহাথির মোহাম্মদ

সোমবার সকালে প্রধানমন্ত্রী ও বারসাতু চেয়ারম্যানের পদ থেকে অব্যাহতি চেয়ে আলাদা পদত্যাগপত্র পাঠান ৯৪ বছর বয়সী মাহাথির মোহাম্মদ। দেশটির রাজা আল সুলতান আব্দুল্লাহ রিয়াতুদ্দীন আল মুস্তাফা বিল্লাহ প্রধানমন্ত্রী মাহাথিরের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেন। তবে পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী নিয়োগের আগ পর্যন্ত তাকে অন্তর্বর্তী প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালনের নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। অপর দিকে বারসাতু চেয়ারম্যান হিসেবে মাহাথিরের পদত্যাগপত্র পাঠানো ইস্যুতে সোমবার রাতে বৈঠকে বসে দলটির সর্বোচ্চ কাউন্সিল।

ওই বৈঠক শেষে দলীয় সদর দফতরে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন বারসাতু দলের সর্বোচ্চ কাউন্সিল সদস্য মোহাম্মদ রফিক নাইজামহিদিন। তিনি বলেন, ‘আমরা চাই বারসাতু এবং আমাদের দেশকে নতুন উচ্চতায় নিয়ে যেতে মাহাথির মোহাম্মদ নেতৃত্ব দেওয়া অব্যাহত রাখুন’। একই সঙ্গে মাহাথিরকে প্রধানমন্ত্রী রাখতে অবিচল সমর্থন দেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

বারসাতু দলের সর্বোচ্চ কাউন্সিলের নেতাদের একটি দল মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সকালে মাহাথির মোহাম্মদের বাসভবনে সাক্ষাৎ করতে যাবেন বলে জানান মোহাম্মদ রফিক। তিনি বলেন, ‘সর্বোচ্চ কাউন্সিলের নেতৃবৃন্দ এবং মাহাথির মোহাম্মদের মধ্যে ব্যক্তিগত বৈঠক হবে’। মাহাথির ওই বৈঠকে সম্মতি দিয়েছেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমরা (বৈঠক) আয়োজনের চেষ্টা করবো’।

মাহাথির মোহাম্মদের পদত্যাগের কারণ জানতে চাইলে বারসাতু দলের সর্বোচ্চ কাউন্সিলের সদস্য মোহাম্মদ রফিক বলেন, ‘এটা খুবই ব্যক্তিগত বিষয়, আমরা প্রকাশ করতে পারবো না’। মালয়েশীয় সংবাদমাধ্যম দ্য স্টারের খবরে বলা হয়েছে, ধারণা করা হচ্ছে বিরোধী দল ইউনাইটেড মালয় ন্যাশনাল অর্গানাইজেশনের (ইউএমএনও) সঙ্গে সহায়তা করা নিয়ে মতবিরোধের জের ধরে প্রধানমন্ত্রী এবং বারসাতু চেয়ারম্যানের পদ থেকে পদত্যাগ করেন মাহাথির মোহাম্মদ।

/জেজে/বিএ/

লাইভ

টপ