সংঘর্ষের জেরে উত্তর-পূর্ব দিল্লির সব স্কুল বন্ধ ঘোষণা

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০৪:০৩, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৫৩, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২০

ভারতের সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) ইস্যুতে সংঘর্ষের জেরে উত্তর-পূর্ব দিল্লির সব সরকারি ও বেসরকারি স্কুল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী মনিশ সিসোদা জানিয়েছেন, মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) এসব স্কুলের সব অভ্যন্তরীণ পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। এদিন ওই এলাকায় বোর্ড পরীক্ষাও বন্ধ রাখতে কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রীকে অনুরোধ করার কথা জানিয়েছেন তিনি। তবে ভারতীয় মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের মুখপাত্র জানিয়েছেন, পরীক্ষাসূচি অনুযায়ী উত্তরপূর্ব দিল্লির কোনও কেন্দ্রে মঙ্গলবার পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা নেই।

ভারতের বিতর্কিত সিএএ আইনের বিরোধিতাকারী ও সমর্থকদের মধ্যে সোমবার দিল্লির বিভিন্ন স্থানে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। বিশেষ করে উত্তরপূর্ব দিল্লিতে দিনভর পাল্টাপাল্টি পাথর নিক্ষেপ, যানবাহন ও দোকানপাটে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় এক পুলিশ কর্মকর্তাসহ অন্তত চার জন নিহত ও অপর ৫০ জন আহত হয়েছে। সন্ধ্যায় আধাসামরিক বাহিনী মোতায়েন ও ১৪৪ ধারা জারির পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার দাবি করেছে ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। তবে এরপরও কয়েকটি স্থানে সহিংসতা হয়েছে বলে জানিয়েছে এনডিটিভি।

দিনভর সহিংসতার পর এক টুইট বার্তায় দিল্লির উপ মুখ্যমন্ত্রী মনিশ সিসোদা লিখেছেন, ‘সহিংসতা কবলিত উত্তর-পূর্ব দিল্লির সব স্কুলের অভ্যন্তরীণ পরীক্ষা বাতিল থাকবে এবং সরকারি ও বেসকারি স্কুল বন্ধ থাকবে। বোর্ড পরীক্ষা নিয়ে কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল নিশাঙ্কের সঙ্গে আমি কথা বলেছি আর তাকে এগুলো স্থগিত রাখার অনুরোধ করেছি’।

তবে ভারতের কেন্দ্রীয় মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের মুখপাত্র রামা শর্মা বার্তা সংস্থা পিটিআইকে বলেছেন, পরীক্ষাসূচি অনুযায়ী আগামীকাল (মঙ্গলবার) কেবল অষ্টম শ্রেণির চারটি ভোকেশনাল বিষয়ের পরীক্ষা ১৮টি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। আর এগুলো সবই দিল্লির পশ্চিম অংশে। দিল্লির উত্তর-পূর্ব অংশে আগামীকাল কোনও পরীক্ষা নেই।

/জেজে/

লাইভ

টপ