যারা ‘ভারত মাতা কি জয়’ বলবে তারাই থাকবে: হিমাচলের মুখ্যমন্ত্রী

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০৩:১৪, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০৩:১৭, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২০

দিল্লিতে তিনদিনের সহিংসতায় প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে হিমাচল রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী জয় রাম ঠাকুর বলেছেন, যারা 'ভারত মাতা কি জয়' বলবে তারাই কেবল দেশটিতে থাকবে। মঙ্গলবার এক সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন তিনি। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস এখবর জানিয়েছে।

জয় রাম ঠাকুর বলেন, ভারতে ভারত মাতা কি জয় বলা লোকেরাই থাকবে। যারা বলবে না, যারা ভারতের বিরোধিতা করবে, ভারতের সংবিধানকে শ্রদ্ধা করবে না, বারবার অসম্মান করবে, তাদের বিষয়ে ভেবে দেখার দরকার।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সফরের কারণে এই সহিংসতা কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, যারা বলছে ‘দেশ খারাপ চলছে’, ‘ভারতে কিছুই ঠিকমতো চলছে না’, ‘এটি ভালো না’, ‘ওটি ভালো না’– এমনটি বলছে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর হওয়ার সময় হয়েছে বলে একজন রাজনীতিক হিসেবে আমি মনে করি।

মুখ্যমন্ত্রীর এই অবস্থানের বিরোধিতা করেছেন সিপিআই(এম) এমএলও রাকেশ সিং। তিনি বলেন, কোন প্রসঙ্গে এই মন্তব্য করা হয়েছে তা আমার জানা নেই। কিন্তু সংবিধান অনুসারে, 'জয়', 'ইনকিলাব' বা 'বন্দেমাতরম'; কে কী বলবে সেটি তার ব্যক্তিগত অধিকার। সংবিধানের চেয়ে বড় কিছু কি আর আছে? যারা নিজেদের দেশপ্রেমী বলে তুলে ধরতে চাইলে তারা দেশের বৈচিত্র্যময়তাকে অবমাননা করছে এবং ঘৃণা ও বিদ্বেষ ছড়াতে ভিত্তিহীন বিতর্ক তৈরি করছে।

রবিবার সন্ধ্যা থেকে দিল্লিতে সহিংসতা বেড়েছে। বিশেষ করে তিনদিনের মধ্যে জাফরাবাদ ও চাঁদবাগ এলাকা থেকে সিএএবিরোধী বিক্ষোভকারীদের হটিয়ে দিতে বিজেপি নেতা কপিল মিশরা দিল্লি পুলিশকে আল্টিমেটাম দেওয়ার পর এই সহিংসতা বৃদ্ধি পায়।

মঙ্গলবার পর্যন্ত সহিংসতায় ১৩ জন নিহতের খবর পাওয়া গেছে। উত্তর-পূর্ব দিল্লির বেশ কিছু এলাকায় মুসলিমদের ওপর হামলায় পুলিশ সহযোগিতা করেছে বলে অভিযোগ রয়েছে। এদিন বেশ কয়েকজন সাংবাদিকও হামলার শিকার হন। 

 

/এএ/

লাইভ

টপ