নতুন ইতিহাস রচিত হলো: নির্ভয়ার মা

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০৭:১০, মার্চ ২০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০৯:৫২, মার্চ ২০, ২০২০

দিল্লির মেডিক্যাল শিক্ষার্থী নির্ভয়া ধর্ষণে জড়িতদের ফাঁসি কার্যকর হওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন মা আশা দেবী। তিনি বলেন, এর মাধ্যমে ভারতে নতুন ইতিহাস রচিত হলো। শুক্রবার ভোরে তিহার কারাগারে নির্ভয়া ধর্ষণে জড়িত অক্ষয় ঠাকুর সিং, মুকেশ সিং, পবন গুপ্তা ও বিনয় শর্মার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হয়। এরপর ওই মন্তব্য করেন আশা দেবী।

নির্ভয়ার মা আশা দেবী বলেছেন, ‘দেরিতে হলেও ন্যায়বিচার পেয়েছি। দেশের নারীরা ন্যায়বিচার পেলেন। গত সাত বছর ধরে যারা আমাদের সঙ্গে ছিলেন, গোটা দেশের মানুষ যারা আমাদের সমর্থন করেছেন, তাদের সবাইকে ধন্যবাদ জানাই। নতুন ইতিহাস রচিত হলো। নির্ভয়া যে ন্যায়বিচার পেলো, সেজন্য বিচারব্যবস্থাকে ধন্যবাদ জানাই। আমার আইনজীবীদেরও।’

তিনি আরও বলেন, ‘অবশেষে আমার কন্যা ন্যায়বিচার পাওয়ায় আমি আজ তৃপ্ত। এই অপরাধ গোটা দেশের কাছে লজ্জা। আজ দেশ ন্যায়বিচার পেলো।’

২০১২ সালের ১৬ই ডিসেম্বর দিল্লিতে চলন্ত বাসে ধর্ষণের শিকার হন এক মেডিক্যাল শিক্ষার্থী। মিডিয়ায় ‘নির্ভয়া’ স্বীকৃতি পাওয়া ওই নারী ১৩ দিন পর সিংগাপুরের একটি হাসপাতালে মারা যান। এ ঘটনায় ভারতজুড়ে প্রতিবাদের ঝড় উঠলে বিক্ষোভকারীদের চাপে ধর্ষকদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিতে আইন পরিবর্তনেও বাধ্য হয় ভারত সরকার। এ ঘটনায় চার আসামির মৃত্যুদণ্ডের আদেশ হয়। আর বাসটির চালক রাম সিং কারাগারে আত্মহত্যা করে। অপর এক আসামি অপরাধের সময় অপ্রাপ্তবয়স্ক থাকায় তিন বছর সংশোধন কেন্দ্রে থাকার পর মুক্তি পায়। আর দীর্ঘ সোয়া সাত বছরের আইনি  লড়াই শেষে শুক্রবার চার ধর্ষককে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়।

/এইচকে/বিএ/

সম্পর্কিত

লাইভ

টপ