ইতালিতে নতুন করে ৬২৭ জনের মৃত্যু, সেনা মোতায়েন

Send
ইসমাইল হোসেন স্বপন, ইতালি
প্রকাশিত : ০০:৩১, মার্চ ২১, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:২৭, মার্চ ২১, ২০২০

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ইতালিতে গত এক দিনে আরও ৬২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে চার হাজার ৩২ জনে। ভাইরাসটির বিস্তার ঠেকাতে লকডাউন কার্যকর করে নাগরিকদের ঘরে থাকতে বাধ্য করতে দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় লোমবার্দে এলাকায় সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানিয়েছে, শুক্রবার ওই অঞ্চলে আপাতত ১১৪ জন সেনা মোতায়েন করা হয়েছে।

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে মৃতের সংখ্যায় আগের দিনই চীনকে পেছনে ফেলেছে ইতালি। সরকারি পরিসংখ্যান অনুযায়ী, দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ২৪৫ জনের। তবে পশ্চিমা সংবাদমাধ্যমে এর বিশ্বাসযোগ্যতা প্রশ্নবিদ্ধ।

ইতালির সবচেয়ে উপদ্রুত এলাকাগুলোর একটি উত্তরাঞ্চলীয় লোমবার্দে। গত মাসে এই এলাকাতেই প্রথম ভাইরাসটির প্রকোপ শুরু হয়। বর্তমানে সেখানকার হাজার হাজার মানুষকে চিকিৎসা দিতে হিমশিম খাচ্ছে হাসপাতালগুলো। সেখানে সহায়তা দিচ্ছেন চীনের মেডিক্যাল বিশেষজ্ঞরা। তারা বলছেন, লোমবার্দেতে আরোপিত নিষেধাজ্ঞা যথেষ্ট কঠোর নয়।

লোমবার্দে অঞ্চলের প্রেসিডেন্ট আত্তিলো ফোন্টানা শুক্রবার বলেছেন, সরকার সেনা মোতায়েনের বিষয়ে একমত হয়েছে। ওই অঞ্চলে আপাতত ১১৪ সেনা মোতায়েনের কথা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘সংখ্যাটি খুবই অল্প তবে এটা ইতিবাচক। দুর্ভাগ্যজনকভাবে আমরা আক্রান্তের সংখ্যা কমার প্রবণতা দেখতে পাচ্ছি না, তা বাড়ছেই।’

মিলানের কর্মরত নার্স ড্যানিয়েলা কনফ্যালোনিয়েরি বলেছেন, ‘পরিস্থিতি এতটাই মারাত্মক যে এখন আর মৃতদেহ গণনা করা যাচ্ছে না’। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেছেন, ‘আমরা মারাত্মক চাপ ও উত্তেজনার মধ্যে কাজ করছি’।

এদিকে করোনা সংকট মোকাবিলায় সাড়ে তিনশ মিলিয়ন ইউরোর বাজেট ঘোষণা করেছে ইতালির সরকার। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার আগে পর্যন্ত যারা কর্মহীন থাকবে তারা বেতনের আশি ভাগ অর্থ পাবে। হোম কোয়ারেন্টিন অমান্যকারীদের পুলিশ ব্যাপক শাস্তি ও জরিমানা আরোপ করছে। স্টেশনে ঘুমানো ছিন্নমূল মানুষদের পুলিশ তুলে নিয়ে গেছে নিরাপদ আশ্রয়ে।

/জেজে/বিএ/এমএমজে/

লাইভ

টপ