খাশোগি হত্যায় তুরস্কে অভিযুক্ত ২০ সৌদি কর্মকর্তা

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২২:৪৬, মার্চ ২৫, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:৪৯, মার্চ ২৫, ২০২০

সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যায় সৌদি আরবের ২০ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ গঠন করেছে তুরস্কের প্রসিকিউটররা। অভিযুক্তদের মধ্যে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের দুই ঘনিষ্ঠ কর্মকর্তাও রয়েছেন। বুধবার ইস্তানবুলের চিফ প্রসিকিউটরের কার্যালয়ের এক বিবৃতিতে এসব কথা জানানো হয়েছে বলে খবর দিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ান।সাংবাদিক জামাল খাশোগি

২০১৮ সালের অক্টোবরে ইস্তানবুলের সৌদি কনস্যুলেটে প্রবেশের পর নিখোঁজ হন ভিন্ন মতালম্বী সাংবাদিক জামাল খাশোগি। বিশ্বজুড়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া শুরু হলে তাকে হত্যার কথা স্বীকার করে সৌদি কর্তৃপক্ষ। তাদের দাবি জিজ্ঞাসাবাদের সময় কর্মকর্তাদের ভুলে নিহত হন ওই সাংবাদিক। তবে তার মৃতদেহের কোনও সন্ধান পাওয়া যায়নি। গত বছরের ডিসেম্বরে এই ঘটনায় পাঁচ কর্মকর্তাকে প্রাণদণ্ড দেওয়ার কথা ঘোষণা করলেও তাদের নাম প্রকাশ করেনি সৌদি আরব। তবে তুরস্ক আলাদাভাবে এই হত্যাকাণ্ডের তদন্ত ও বিচার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

বুধবার ইস্তানবুলের চিফ প্রসিকউটর ইরফান ফিদান এক বিবৃতিতে জানান, রাজ পরিবারের সাবেক উপদেষ্টা সৌদ আল কাহতানি ও সাবেক গোয়েন্দা উপপ্রধান আহমেদ আল আসিরির নির্দেশে খাশোগিতে হত্যা করতে সৌদি আরবের ১৫ সদস্যের একটি দল ইস্তানবুলে যায়। এই দলে তিন গোয়েন্দা কর্মকর্তা ছিলো। তাদেরসহ মোট ২০ জনের বিরুদ্ধে পূর্বপরিকল্পিত হত্যার অভিযোগ আনা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীদের স্বাক্ষ্য, ফোন রেকর্ডসহ আনুষাঙ্গিক তথ্য বিশ্লেষণ শেষে তুর্কি তদন্তকারীরা সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেন যে খাশোগিকে হত্যার পর করাত দিয়ে তার দেহ টুকরো টুকরো করে ফেলা হয়। পরে সেগুলো এসিড দিয়ে গলিয়ে দেওয়া হয়।

/জেজে/

লাইভ

টপ