করোনার জার্মান প্রতিষেধক মানুষের ওপর পরীক্ষার জন্য প্রস্তুত

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২২:৪৯, এপ্রিল ২২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:০৪, এপ্রিল ২৪, ২০২০

করোনাভাইরাসের একটি সম্ভাব্য প্রতিষেধকের উন্নয়ন ঘটিয়েছে জার্মান প্রতিষ্ঠান বায়ো এনটেক এবং মার্কিন ওষুধ প্রস্তুতকারক ফাইজার। এই প্রতিষেধকটি মানুষের ওপর পরীক্ষার জন্য সবুজ সংকেত পেয়েছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, ১৮ থেকে ৫৫ বছর বয়সী দুইশ’ স্বাস্থ্যবান মানুষের ওপর এই প্রতিষেধকের পরীক্ষা চালানো হবে।

বিশ্বজুড়ে মহামারির আকার নেওয়া করোনাভাইরাসের এখন পর্যন্ত কোনও প্রতিষেধক আবিষ্কৃত হয়নি। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, টেকসই কোনও প্রতিষেধক উদ্ভাবনে এক বছর পর্যন্ত সময় লাগতে পারে। ইতোমধ্যে অল্প কয়েকটি সম্ভাব্য প্রতিষেধকই ক্লিনিক্যাল টেস্টে উত্তীর্ণ হয়ে মানুষের ওপর পরীক্ষার জন্য প্রস্তুত হয়েছে। যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা এই সপ্তাহে একটি প্রতিষেধক মানুষের ওপর পরীক্ষা শুরু করবেন। এছাড়া যুক্তরাষ্ট্র ও চীনে বেশ কিছু প্রতিষেধকের ক্লিনিক্যাল পরীক্ষা চলছে।

বুধবার জার্মানির স্বাস্থ্যমন্ত্রী জেনস স্প্যান জানান, প্রাথমিক গবেষণার ভিত্তিতে জার্মানি প্রতিষেধক উন্নয়ন শুরু করতে পারা ইতিবাচক লক্ষণ। তিনি বলেন, একই সঙ্গে এতে আরও কয়েক মাস লাগবে সেই পরামর্শও বহাল রয়েছে। প্রতিষেধক হিসেবে যা উন্নয়ন ঘটানো হয়েছে তা ইনজেকশনের মাধ্যমে শরীরে প্রবেশ করানো হবে। এই ধরনের প্রতিষেধক পরীক্ষার জন্য নিরাপত্তাকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেওয়া হয়।’

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাসের মহামারিতে এখন বিশ্বজুড়ে আক্রান্তের সংখ্যা ২৫ লাখ ছাড়িয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, বুধবার পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৫ লাখ ৪৬ হাজার ৫২৭ জন। বিশ্ববিদ্যালয়টির ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, করোনাভাইরাস বৈশ্বিক মহামারিতে এ পর্যন্ত বিশ্বের ১৮৫টি দেশ ও অঞ্চল আক্রান্ত হয়েছে। এরমধ্যে এক লাখ ৭৫ হাজার ৮১২ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং সুস্থ হয়েছেন ৬ লাখ ৭৮ হাজার ৫৫৭ জন।

/জেজে/বিএ/এমওএফ/

লাইভ

টপ