নগ্ন হয়ে প্রতিবাদ জানালেন পিপিই সংকটে থাকা জার্মান চিকিৎসকরা

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১০:৪৩, এপ্রিল ২৯, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৫:৫৫, এপ্রিল ২৯, ২০২০

করোনাভাইরাস চিকিৎসায় পার্সোনাল প্রটেকটিভ ইকুইপমেন্ট (পিপিই) সংকটে থাকা জার্মান চিকিৎসকেরা অপ্রচলিত ধারায় প্রতিবাদ জানিয়েছেন। তারা এই সংকটকে সামনে আনতে নগ্ন হয়ে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন। প্রতিবাদের নাম দিয়েছেন ‘নগ্ন সংশয়’।

 

গত জানুয়ারিতে জার্মানিতে হানা দেয় করোনাভাইরাস। জার্মান ফার্মগুলো যে পিপিই সরবরাহ করছে তা প্রয়োজনের তুলনায় যথেষ্ট কম। এ কারণে মাস্ক, গগলস, গ্লাভস ও অ্যাপ্রনের সরবরাহ বাড়ানোর দাবি জানিয়ে আসছেন স্বাস্থ্যকর্মী ও চিকিৎসকরা।

দ্য গার্ডিয়ান জানিয়েছে, করোনাভাইরাস থেকে সুরক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় জামা-কাপড় ও সরঞ্জামের ঘাটতির প্রতিবাদস্বরূপ বার্লিনের একদল চিকিৎসক বিক্ষোভ করেছেন। আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা দিতে গিয়ে প্রয়োজনীয় সরঞ্জামের অভাবে তারা নিজেদের অরক্ষিত মনে করছেন বলেই এর নাম দিয়েছেন 'নগ্ন সংশয়'। চিকিৎসকরা নগ্ন হয়ে কেউ ফাইলের পেছনে, কেউ টয়লেট রোলের পেছনে, মেডিকেল জিনিসপত্র বা প্রেসক্রিপশনের পেছনে নিজেদের ঢেকে রেখে প্রতিবাদ করেছেন।

প্রতিবাদী চিকিৎসকদের নেতৃত্বের দায়িত্বে ছিলেন ডা. রুবেন বারনাউ। তিনি সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘ঘাতক এই ভাইরাস মোকাবিলার জন্য তাদের জরুরি জিনিসপত্র দেওয়া হচ্ছে না। আর এই রোগের চিকিৎসা করতে গেলে সুরক্ষা কতটা প্রয়োজন তা হয়তো সবারই জানা। তবে পর্যাপ্ত পিপিই না পাওয়ায় আমরা কতটা আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছি, তা বোঝাতেই নগ্ন হওয়া।'

/এফইউ/বিএ/এমওএফ/

লাইভ

টপ