ইতালিতে দুর্বল হচ্ছে করোনাভাইরাস: চিকিৎসকের দাবি

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৪:০৫, জুন ০১, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৪:১৫, জুন ০১, ২০২০

ইতালিতে করোনাভাইরাস ক্রমাগত শক্তি হারাচ্ছে এবং এটি আগের চেয়ে অনেক কম প্রাণঘাতী। রবিবার (৩১ মে) আরএআই টেলিভিশনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জ্যেষ্ঠ ইতালীয় চিকিৎসক আলবার্তো জাংরিলো এমন দাবি করেছেন। তার বিশ্বাস, ইতালিতে ক্লিনিক্যালি ভাইরাসটির আর অস্তিত্ব নেই।  ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

প্রতীকী ছবি

করোনাভাইরাস আক্রান্ত হয়ে প্রাণহানির দিক থেকে বিশ্বে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে ইতালি। গত ফেব্রুয়ারিতে সেদেশে করোনা শনাক্ত হওয়ার পর এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৩৩ হাজার ৪১৫ জনের। আক্রান্তের সংখ্যার দিক দিয়ে বিশ্বে ইতালির অবস্থান ষষ্ঠ। সেদেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৩৩ হাজারের বেশি। তবে মে মাস থেকে দেশটিতে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা কমতে শুরু করেছে। এরইমধ্যে লকডাউনসহ বেশ কিছু বিধি-নিষেদ শিথিল করেছে ইতালির সরকার।

ইতালির মিলান শহরের সান রাফায়েল হাসপাতালের প্রধান চিকিৎসক আলবার্তো জাংরিলো। ক্লিনিক্যালি করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব নেই দাবি করে আরএআই টেলিভিশনকে তিনি বলেন, ‘গত ১০ দিনে যেসব নমুনা পরীক্ষা হয়েছে তাতে দেখা গেছে, ভাইরাসটির ক্ষমতা পূর্ববর্তী এক মাস বা দুই মাসের তুলনায় ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র পর্যায়ের।’  

জাংরিলো মনে করেন, দ্বিতীয় দফায় সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে যারা আশঙ্কা জানিয়েছিলেন, তাদেরকে নতুন বাস্তবতা নিয়ে আরেকবার ভাবতে হবে।

তবে এখনই ইতালিকে করোনামুক্ত বলে দাবি করতে রাজি নয় সরকার। ইতালির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সহকারি সচিব সান্দ্রা জাম্পা এক বিবৃতিতে বলেন, ‘বৈজ্ঞানিক প্রমাণ হাজির না করে ভাইরাসের অস্তিত্ব নেই বলে যারা তত্ত্ব দিচ্ছেন, তাদেরকে বলব, ইতালীয়দেরকে দ্বিধায় ফেলবেন না। আমরা বরং ইতালীয়দের পরামর্শ দেব তারা যেন সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করে, শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখে, বড় জমায়েত এড়িয়ে চলে, নিয়মিত হাত ধোয় এবং মাস্ক পরিধান করে।’

জেনোয়া শহরের সান মার্টিনো হাসপাতালের চিকিৎসক মাত্তেও বাসেতিও মনে করেন, দু'মাস আগে এই ভাইরাসের যে শক্তি ছিল বর্তমানে তা নেই। সংবাদ সংস্থা এএনএসএ-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, এটা পরিষ্কার যে, কোভিড-১৯ এখন ভিন্ন একটি রোগ।

 

 

 

/এফইউ/

লাইভ

টপ