জয়েশ-এ-মোহাম্মদের ‘বোমা প্রস্তুতকারী’কে হত্যার দাবি ভারতের

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২১:৪২, জুন ০৩, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:৫০, জুন ০৩, ২০২০

কাশ্মিরে সক্রিয় পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন জয়েশ-এ-মোহাম্মদের তিন সদস্যকে হত্যার কথা জানিয়েছে ভারত। বুধবার সকালে পুলওয়ামা জেলার একটি গ্রামে এই অভিযানে নিরাপত্তা বাহিনীর এক সদস্যও আহত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে ফয়জি ভাই নামে এক ব্যক্তি রয়েছেন। তাকে ইম্প্রোভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস (আইইডি) বিশেষজ্ঞ আখ্যা দিয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর দাবি এই ব্যক্তি সংগঠনটির জন্য বোমা বানাতো। গত মাসে হিজবুল মুজাহিদিন কমান্ডার রিয়াজ নাইকুকে হত্যার পর ফয়জিকে হত্যাকে আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর দ্বিতীয় বড় সাফল্য হিসেবে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে ভারতীয় সম্প্রচারমাধ্যম এনডিটিভি।

গত ৬ মে ভারতের নিরাপত্তাবাহিনীর অভিযানে কাশ্মিরের স্বাধীনতাকামী সংগঠন হিজবুল মুজাহিদীনের শীর্ষ কমান্ডার রিয়াজ নাইকু নিহত হন। পুলওয়ামা জেলায় নিরাপত্তা বাহিনীর অভিযানের সময় নাইকুসহ অন্তত দুই জন নিহত হয়। আর কাশ্মিরে সাম্প্রতিক সময়ে যতগুলো বড় ধরনের হামলা হয়েছে সবগুলোতেই প্রধান সন্দেহভাজন হিসেবে রয়েছে জয়েশ-এ-মুহাম্মদের নাম। গত বছর পুলওয়ামায় সিআরপিএফ’র গাড়ি বহরে হামলা চালিয়ে ৪০ জনকে হত্যার দায় স্বীকার করে সংগঠনটি।

কাশ্মির পুলিশের মহাপরিদর্শক বিজয় কুমার জানান, গত সপ্তাহে ফয়জি ভাইয়ের তৈরি আইইডি ভর্তি একটি গাড়ি জব্দ করা হয়। তার সূত্র ধরে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী বুধবার সকালে সেনাবাহিনী, পুলিশ ও সিআরপিএফ সদস্যরা যৌথ অভিযান চালায়। এতে পাকিস্তানি নাগরিক ফয়জি ছাড়াও দুই জন নিহত হয়। তিনি বলেন, ‘নিরাপত্তা বাহিনীর জন্য এটা বড় ধরনের সাফল্য।’

এর আগে গত সপ্তাহে পুলওয়ামায় একটি গাড়ি বোমা হামলা ঠেকানোর দাবি করে নিরাপত্তা বাহিনী। ৪০-৪৫ কেচি বিস্ফোরক ভর্তি গাড়িটি ব্যবহার করে গত বছরের মতো মারাত্মক হামলার পরিকল্পনা ছিল বলে জানিয়েছে ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনী।

/জেজে/

সম্পর্কিত

লাইভ

টপ