হংকংয়ের নতুন নিরাপত্তা সংস্থায় কট্টরপন্থীকে নিয়োগ চীনের

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২০:৫৩, জুলাই ০৩, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:২২, জুলাই ০৩, ২০২০

হংকংয়ের নতুন নিরাপত্তা সংস্থার প্রধান হিসেবে এক কট্টরপন্থীকে নিয়োগ দিয়েছে চীন। নতুন নিয়োগ পাওয়া জেন ইয়ানজিয়োং দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় গ্রাম উকানে ভূমি বিরোধ সংক্রান্ত বিক্ষোভ মোকাবিলার জন্য ব্যাপক পরিচিত। নতুন এই নিরাপত্তা সংস্থাটি সরাসরি বেইজিংয়ের কাছে জবাবদিহি করবে। এই সপ্তাহে পাস হওয়া নতুন জাতীয় নিরাপত্তা আইনের অধীনে ওই সংস্থাটি গঠন করা হয়েছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি’র প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

১৫০ বছর ঔপনিবেশিক শাসনে থাকার পর লিজ চুক্তির মেয়াদ শেষে ১৯৯৭ সালের ১ জুলাই হংকং-কে চীনের কাছে ফেরত দেয় যুক্তরাজ্য। তখন থেকে অঞ্চলটি ‘এক দেশ, দুই নীতি’ পদ্ধতির আওতায় স্বায়ত্তশাসনের মর্যাদা ভোগ করে আসছে। বিশেষ প্রশাসনিক অঞ্চল হিসেবে বিবেচিত হংকংকে ২০৪৭ সাল পর্যন্ত স্বায়ত্তশাসনের নিশ্চয়তা দিয়েছে চীন। এই সময়ে প্রতিরক্ষা ও পররাষ্ট্র নীতি বাদে অন্য সব বিষয়ে স্বায়ত্তশাসন ভোগ করতে পারবে অঞ্চলটি। তবে গত বছর অঞ্চলটিতে ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে সেখানে বিতর্কিত হংকং নিরাপত্তা আইন প্রণয়নের উদ্যোগ নেয় বেইজিং। এখন এর দোহাই দিয়ে আধা স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চলটির ওপর বাড়তি ক্ষমতা প্রয়োগের সুযোগ পাবে চীন।

বিরোধীরা বলছেন, নতুন এই আইন অঞ্চলটির স্বাধীনতা খর্ব করবে। এই আইনে দেশদ্রোহিতা ও সন্ত্রাসবাদের জন্য সর্বোচ্চ যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের বিধান রাখা হয়েছে। আইন প্রণয়নের পরই নিজ দায়িত্ব থেকে ইতোমধ্যে পদত্যাগ করেছেন সেখানকার বেশ কয়েকজন গণতন্ত্রপন্থী কর্মী। এছাড়া একসময়ের ছাত্র নেতা এবং স্থানীয় আইনপ্রণয়নকারী নাথান ল ইতোমধ্যে অঞ্চলটি ছেড়ে চলে গেছেন।

হংকংয়ের নতুন নিরাপত্তা সংস্থার প্রধান হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার আগে জেন ইয়ানজিয়োংয়ের সর্বোচ্চ পদ ছিল ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টির দক্ষিণাঞ্চলীয় প্রদেশ গুয়াংডংয়ের সাধারণ সম্পাদক। তবে তার পরিচিত হয়ে ওঠে গুয়াংডংয়ের শানওয়েই শহরের দলীয় প্রধান হিসেবে। ২০১১ সালে উকান গ্রামে জমি অধিগ্রহণের ক্ষতিপূরণের দাবিতে গ্রামবাসীর বিক্ষোভ দমনের জন্য পরিচিত হয়ে ওঠেন তিনি। ওই সময়ে গ্রামবাসীর সমালোচনা করে তিনি বলেছিলেন, সরকারের সঙ্গে দুর্ভোগ নিয়ে আলোচনার পরিবর্তে তারা কয়েকটি বিদেশি পচে যাওয়া সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলছে। তিনি বলেন, আমাদের সমাজতান্ত্রিক দেশ ভেঙে পড়লেই কেবল এসব মিডিয়া প্রতিষ্ঠান খুশি হবে।

ওই বিক্ষোভের জেরে কর্তৃপক্ষ এক বিরল অনুমোদন দিয়ে স্থানীয় জনপ্রিয় নেতা নির্বাচনে সরাসরি ভোটের আয়োজন করে। তবে পাঁচ বছর পর ওই নেতাকে দুর্নীতির দায়ে কারাদণ্ড দেওয়া হয় আর আন্দোলন বন্ধ হয়ে যায়।

পরে শানওয়েই শহরের দলীয় পদ থেকে সরে যান জেন ইয়ানজিয়োং। তবে গুয়াংডংয়ের ঊর্ধ্বতন দলীয় কর্মকর্তা হিসেবে ভূমিকা রাখছিলেন তিনি।

/জেজে/এমওএফ/

লাইভ

টপ