এবারের হজে হাজরে আসওয়াদে চুমু নিষিদ্ধ

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২২:৩৪, জুলাই ০৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:৩৬, জুলাই ০৬, ২০২০

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে এবছরের হজ সীমিত পরিসরে আয়োজনের ঘোষণা আগেই দিয়েছে সৌদি আরব। এবার হজ পালনের যেসব নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে তাতে জানা গেছে, মুসল্লিদের হজ পালনের সময় ইসলামের পবিত্রতম স্থান কাবা শরিফের হাজরে আসওয়াদে চুমু দেওয়া ও স্পর্শ করা নিষিদ্ধ করা হয়েছে। সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা এসপিএ-এর বরাতে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এখবর জানিয়েছে।




সোমবার সৌদি আরবের সেন্টার ফর ডিজিজ প্রিভেনশন অ্যান্ড কন্ট্রোল (সিডিসি)- এর পক্ষ থেকে এবছরের হজ পালনের নির্দেশিকা প্রকাশ করা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, পুরো হজের সময় মুসল্লিদের ১ মিটার সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। এমনকি নামাজ ও কাবা শরিফ তাওয়াফ (প্রদক্ষিণ) করার সময়ও তা মেনে চলতে হবে।
জুন মানে সৌদি আরব ঘোষণায় দেয় এই বছর হজে মাত্র ১ হাজার মুসল্লি অংশ গ্রহণ করবেন। করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে শুধু সৌদি আরবের অবস্থানরতরা হজে অংশ নিতে পারবেন। আধুনিক সৌদি আরবের ইতিহাসে এই প্রথমবারের মতো বিভিন্ন দেশে মুসলমানদের হজে অংশগ্রহণ বাতিল করা হলো।
সিডিসি’র নির্দেশিকায় আরও বলা হয়েছে, হজের অনুমতিপত্র ছাড়া ছাড়া হজের নির্দিষ্ট পবিত্র স্থান মিনা, মুজদালিফা ও আরাফাতের ময়দানে ১৯ জুলাই থেকে ২ আগস্ট হজের পঞ্চম দিন পর্যন্ত প্রবেশ নিষিদ্ধ থাকবে।
এছাড়া আয়োজক ও হজযাত্রী উভয়ের জন্যই মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক বলে নির্দেশনা জারি করেছে সিডিসি। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এবারের হজ পালনকারীদের ৩০ শতাংশ হবেন সৌদি নাগরিক, বাকিরা বিদেশি। যাদেরকে হজের জন্য নির্বাচন করা হবে তাদের অবশ্যই করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ আসবে হবে। ২০ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে এটিই হতে হবে তাদের প্রথম হজ। কারও দীর্ঘমেয়াদি শারীরিক জটিলতা থাকলে তিনি হজের জন্য বিবেচিত হবেন না।
বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, সৌদি স্বাস্থ্যকর্মী ও নিরাপত্তাকর্মীদের মধ্যে যারা করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন তাদের জন্য বরাদ্দ থাকবে।

 

/এএ/

সম্পর্কিত

লাইভ

টপ