ডব্লিউএইচও সংস্কার: যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গ ছাড়লো জার্মানি ও ফ্রান্স

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৪:১৫, আগস্ট ০৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৪:১৮, আগস্ট ০৮, ২০২০

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)-এর সংস্কার নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আলোচনা থেকে বেরিয়ে গেছে জার্মানি ও ফ্রান্স। যুক্তরাষ্ট্র সংস্থাটি থেকে বেরিয়ে গেলেও সংস্কারের জন্য তাদের নেতৃত্বে আলোচনা চলছিল। তিন ইউরোপীয় কর্মকর্তার বরাতে এ তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

ওয়াশিংটন ও মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জন্য জার্মানি ও ফ্রান্সের আলোচনা থেকে সরে যাওয়াকে বিপত্তি হিসেবে মনে করা হচ্ছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের দুই মাস আগে সেপ্টেম্বরে জি সেভেন সম্মেলনে ডব্লিউএইচও’র সংস্কার নিয়ে একটি ঐকমত্যের রূপরেখা গড়ে তোলার আগ্রহ ছিল যুক্তরাষ্ট্রের। কিন্তু জি সেভেনের সদস্য রাষ্ট্র ফ্রান্স ও জার্মানি আলোচনা থেকে সরে যাওয়াতে সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হুমকির মুখে পড়ল।

জাতিসংঘের এই স্বাস্থ্য থেকে বেরিয়ে যেতে এক বছরের নোটিশ দিয়েছেন ট্রাম্প। করোনা মহামারি সংস্থাটি চীনকেন্দ্রিক হয়ে পড়েছে অভিযোগে এই পদক্ষেপ নেন তিনি।

ইউরোপীয় দেশগুলোও সংস্থাটির সমালোচনা করলেও যুক্তরাষ্ট্রের মতো বেরিয়ে যাওয়ার কঠোর সিদ্ধান্ত নেয়নি।

ডব্লিউএইচও চীনকেন্দ্রিক হয়ে পড়ার অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে।

আলোচনায় জড়িত এক সিনিয়র ইউরোপিয়ান কর্মকর্তা বলেন, কেউ চায় না সংস্কার প্রক্রিয়ায় জড়িত ও রূপরেখা তৈরি করতে এমন দেশের নেতৃত্বে যারা সম্প্রতি ডব্লিউএইচও থেকে বেরিয়ে গেছে।

জার্মান ও ফরাসি স্বাস্থ্যমন্ত্রীরা রয়টার্সকে নিশ্চিত করেছেন যে, সংস্কার নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আলোচনায় তাদের দেশ বিরোধিতা করেছে। যুক্তরাষ্ট্র সংস্থাটি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেওয়ার পরই এই বিরোধিতা করা হয়।

ইতালির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জানিয়েছেন, সংস্কারের নথি নিয়ে আলোচনা চলমান। তবে জার্মানি ও ফ্রান্সের সঙ্গে ইতালির অবস্থানের মিল রয়েছে।

ডব্লিউএইচও’র সংস্কার নিয়ে ফ্রান্স ও জার্মানির অবস্থানের বিষয়ে ট্রাম্প প্রশাসনের এক কর্মকর্তা বলেন, সংস্থাটি সংস্কারের বিষয়টি জি সেভেনের সব সদস্যই সমর্থন করেন। তবে এখন রূপরুখা তৈরির আগে জার্মানি ও ফ্রান্সের আলোচনা থেকে সরে যাওয়াটা দুঃখজনক। 

/এএ/

লাইভ

টপ