সৌদি আরবের বিরুদ্ধে অস্ত্র নিষেধাজ্ঞার প্রস্তাব

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০৯:৩০, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০২:৫১, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২০

ইউরোপীয় পার্লামেন্টে সৌদি আরবের বিরুদ্ধে অস্ত্র নিষেধাজ্ঞার প্রস্তাব উঠেছে। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা জানিয়েছে, সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যা এবং যুদ্ধের মধ্য দিয়ে ইয়েমেনকে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দেওয়ার প্রসঙ্গ উল্লেখ করে রিয়াদের বিরুদ্ধে এই অবস্থান নিয়েছে ইইউ পার্লামেন্ট। বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর)  ইইউভুক্ত সকল দেশকে নিষেধাজ্ঞা আরোপের আহ্বান জানানো হয়েছে।

২০১৮ সালের অক্টোবরে ওয়াশিংটন পোস্টের কলাম লেখক জামাল খাশোগি তুরস্কের ইস্তাম্বুলে অবস্থিত সৌদি কনস্যুলেটে ঢোকার পর নির্মমভাবে খুন হত্যায় অভিযুক্ত স্বয়ং যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। এদিকে ২০১৫ সাল থেকে ইয়েমেনে সামরিক অভিযান শুরু করে সৌদি নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট। ইরান সমর্থিত হুথি বিদ্রোহীদের সঙ্গে তাদের যুদ্ধ-সংঘাতে ইয়েমেনের হাজার হাজার সাধারণ মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। বিশ্বের সবচেয়ে মর্মান্তিক মানবিক সংকট তৈরি হয়েছে সেখানে।

খাশোগি হত্যার ঘটনায় জার্মানি, ফিনল্যান্ড এবং ডেনমার্ক আগেই সৌদি আরবের ওপর বিভিন্ন পর্যায়ের অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল। বৃহস্পতিবার ইইউ পার্লামেন্টের আইনপ্রণেতারা ইয়েমেন যুদ্ধে জড়িত সৌদি জোটের বাকি দেশগুলোর ওপরও অস্ত্র নিষেধাজ্ঞার আহ্বান জানিয়েছেন। ইইউ পার্লামেন্টের আইনপ্রণেতারা জোটের সকল সদস্যদের প্রতি জার্মানি, ফিনল্যান্ড এবং ডেনমার্কের পথ অনুসরণ করার আহ্বান জানান।

বৃহস্পতিবার ইইউ পার্লামেন্টে অস্ত্র রফতানি প্রতিবেদন গ্রহীত হয়েছে। নথিতে দেখা যাচ্ছে,  ইইউভূক্ত দেশগুলো সৌদি জোটে থাকা বিভিন্ন দেশের কাছে যে অস্ত্র বিক্রি করেছে তা ব্যবহার করা হয়েছে ইয়েমেন যুদ্ধে; যুদ্ধকবলিত সৌদি সীমান্ত লাগোয়া ওই দেশটির দুই কোটি ২০ লাখ মানুষের এখন মানবিক সহায়তা ও সুরক্ষা প্রয়োজন।

/এফইউ/বিএ/

লাইভ

টপ