নবীর অবমাননা সহিংসতায় উসকানি দেবে: রুহানি

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৯:৪৭, অক্টোবর ২৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:২২, অক্টোবর ২৮, ২০২০

ফ্রান্সে মহানবী (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের নিন্দা জানিয়েছে ইরান। দেশটির প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি বলেছেন, নবীর অবমাননা সহিংসতায় উসকানি দেবে। আর অবমাননা কোনও শিল্প হতে পারে না। বরং এটি নীতি-নৈতিকতা পরিপন্থী কাজ। বুধবার তেহরানে ইরানের মন্ত্রিসভার বৈঠকে এমন মন্তব্য করেন তিনি।

ইরানের প্রেসিডেন্ট বলেন, নবীকে অবমাননার মধ্য দিয়ে শত শত কোটি মুসলমানসহ অসংখ্য মানুষের হৃদয়ে আঘাত করা হচ্ছে, সহিংসতায় উসকানি দেওয়া হচ্ছে।

হাসান রুহানি বলেন, যারা এই ভুল পথে পা বাড়িয়েছে তাদের উচিত অবিলম্বে পথ পরিবর্তন করে সত্য ও ন্যায়ের পথে ফিরে আসা এবং ঐশী ধর্মগুলোর প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন করা।

ইরানের প্রেসিডেন্ট বলেন, ইউরোপিয়ানরাসহ প্রাচ্য ও পাশ্চাত্যের প্রতিটি মানুষ মহানবী হজরত মোহাম্মদ (সা.)-এর কাছে ঋণী। কারণ, তিনি হলেন গোটা মানবতার শিক্ষক। এটা খুব বিস্ময়কর যে, যারা নিজেরা মুখে মুক্তি, স্বাধীনতা, ন্যায়-নীতি ও আইনের কথা বলে তারাই অন্যকে অবমাননার জন্য জনগণকে উসকানি দিচ্ছে।

ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁসহ কয়েকজন ইউরোপীয় কর্মকর্তার অবমাননাকর বক্তব্যের বিরুদ্ধে গোটা মুসলিম বিশ্বের প্রতিবাদের প্রশংসা করেন রুহানি। তিনি বলেন, এর মধ্য দিয়ে এটাই স্পষ্ট হয়েছে যে, মুসলিম বিশ্ব কখনোই মহানবী (সা.)-এর পথ থেকে দূরে সরে যাবে না।

তিনি বলেন, ফ্রান্সসহ পাশ্চাত্যের দেশগুলো মুসলিম দেশগুলোতে হস্তক্ষেপ করছে। মানব সমাজে শান্তি, ভ্রাতৃত্ব ও নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠার যে স্লোগান তারা দেয় সে ব্যাপারে আন্তরিকতা থাকলে তাদের উচিত মুসলিম দেশগুলোর অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ বন্ধ করা। সূত্র: পার্স টুডে।

/এমপি/এমওএফ/

লাইভ

টপ