আবার মার্কিন নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করতে চাইছে রুশ হ্যাকাররা?

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৯:৩৬, অক্টোবর ৩০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:৪৭, অক্টোবর ৩০, ২০২০

২০১৬ সালের মার্কিন নির্বাচনে হস্তক্ষেপে অভিযুক্ত রুশ হ্যাকার গ্রুপটি এ বছরের শুরুতে ক্যালিফোর্নিয়া ও ইন্ডিয়ানা অঙ্গরাজ্যের ডেমোক্র্যাটিক পার্টির ইমেইল অ্যাকাউন্টকে লক্ষ্যবস্তু করেছিল। ফ্যান্সি বিয়ার নামের ওই গ্রুপটি ওয়াশিংটন ও নিউ ইয়র্কভিত্তিক প্রভাবশালী গবেষণা প্রতিষ্ঠানের অ্যাকাউন্টও হ্যাকিংয়ের চেষ্টা করেছিল। তবে বেশিরভাগ হ্যাকিং প্রচেষ্টাই থামিয়ে দিতে পেরেছে সফটওয়্যার কোম্পানি মাইক্রোসফট। এ ব্যাপারে জানাশোনা থাকা কয়েকটি সূত্র ও মাইক্রোসফট-এর সাম্প্রতিক এক পর্যালোচনাকে উদ্ধৃত করে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এসব তথ্য জানিয়েছে।

হ্যাকার গ্রুপ ফ্যান্সি বিয়ার রাশিয়ার গোয়েন্দা সংস্থা কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত বলে মনে করা হয়ে থাকে। ২০১৬ সালের নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের ইমেইল অ্যাকাউন্ট হ্যাকিংয়ের জন্য এ গ্রুপটিকে দায়ী করা হয়ে থাকে। গত মাসে মাইক্রোসফট জানায়, এ বছরের শুরুর দিকে ফ্যান্সি বিয়ার যুক্তরাষ্ট্রের দুই শতাধিক প্রতিষ্ঠানে হ্যাকিংয়ের প্রচেষ্টা চালিয়েছিল। এর বেশিরভাগই ২০২০ সালের আসন্ন নির্বাচনের সঙ্গে সম্পর্কিত। অন্তত চার জন ব্যক্তি রয়টার্সকে জানিয়েছেন, ইন্ডিয়ানা ও ক্যালিফোর্নিয়াতে ডেমোক্র্যাটদের লক্ষ্যবস্তু করা হয়েছিল। ইন্ডিয়ানার ডেমোক্র্যাটিক পার্টি এক বিবৃতিতে বলেছেন, এ ধরনের কোনও হ্যাকিং প্রচেষ্টা সফল হওয়ার কথা তাদের জানা নেই। ক্যালিফোর্নিয়ার ডেমোক্র্যাটিক পার্টির চেয়ার রুস্টি হিকস হ্যাকিংয়ের লক্ষ্যবস্তু হওয়ার কথা স্বীকার করেছেন। তবে ফ্যান্সি বিয়ারের নাম উল্লেখ না করে তিনি বলেছেন, ‘বিদেশিদের এ প্রচেষ্টা সফল ছিল না।’

যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা এফবিআই এ ব্যাপারে মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে।

একটি প্রোগ্রামিং এররের মধ্য দিয়ে রুশ হ্যাকারদের প্রচেষ্টা শনাক্ত করতে পেরেছে মাইক্রোসফট। কোম্পানিটির এক পর্যালোচনা থেকে এ তথ্য জানার কথা উল্লেখ করেছে রয়টার্স। তবে এ ব্যাপারে মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে মাইক্রোসফট।

রয়টার্স জানিয়েছে, গবেষণা প্রতিষ্ঠান আমেরিকান প্রগ্রেস, দ্য কাউন্সিল অন ফরেন রিলেশন্স এবং ওয়াশিংটনভিত্তিক কার্নেগি এনডোমেন্ট ফর ইন্টারন্যাশনাল পিচ-এর ইমেইল অ্যাকাউন্টও হ্যাকিংয়ের প্রচেষ্টা চালানো হয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলো বলছে, কোনও সফল হ্যাকিংয়ের প্রমাণ পায়নি তারা।

ডেমোক্র্যাটিক ন্যাশনাল কমিটির মুখপাত্র ক্রিস মিয়াঘের বলেন, বিদেশি শক্তি নির্বাচনে হন্তক্ষেপের যে প্রচেষ্টা চালাচ্ছে, তাতে ‘বিস্মিত হওয়ার কিছু নেই।’

রয়টার্স জানিয়েছে, এ হ্যাকিং প্রচেষ্টার উদ্দেশ্য কী ছিল তা নিশ্চিত হতে পারেনি তারা। তবে আগস্টে ন্যাশনাল ইনটেলিজেন্সের পরিচালকের কার্যালয় থেকে বলা হয়েছিল, ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনের প্রচারণা খর্ব করতে রুশ অভিযান চলছে।

এদিকে ওয়াশিংটনের রুশ দূতাবাস দাবি করেছে, তারা যুক্তরাষ্ট্রের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করে না। ফ্যান্সি বিয়ারের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগও অস্বীকার করেছে তারা। দূতাবাসের দাবি, এ অভিযোগ ভুয়া।

এ ব্যাপারে ট্রাম্প শিবিরের অবস্থান জানা যায়নি।

/এফইউ/বিএ/এমওএফ/

লাইভ

টপ