মিয়ামিতে হিলারি-স্যান্ডার্স তুমুল বিতর্ক

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২৩:৫২, মার্চ ১০, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:৫৫, মার্চ ১০, ২০১৬

যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসন ইস্যুতে বুধবার তুমুল বিতর্কে লিপ্ত হয়েছেন ডেমোক্রেটিক পার্টি থেকে প্রেসিডেন্ট পদে দুই মনোনয়নপ্রত্যাশী হিলারি ক্লিনটন ও বার্নি স্যান্ডার্স। এদিনের বিতর্কে অভিবাসন ইস্যু ছাড়াও নাগরিকদের স্বাস্থ্য সেবার বিষয়টি উঠে আসে। এছাড়া দুজনই রিপাবলিকান পার্টি থেকে একই পদে মনোনয়নপ্রত্যাশী ডোনাল্ড ট্রাম্পের কঠোর সমালোচনা করেন।

ফ্লোরিডাসহ অন্যান্য স্থানে পরবর্তী কয়েক দফা প্রাইমারি শুরু হওয়ার আগে দিয়ে মিয়ামিতে অনুষ্ঠিত হল এ বিতর্ক। এতে সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটন ২০০৭ সালে অভিবাসন আইন সংস্কার প্রস্তাবের বিপক্ষে ভোট দেওয়ায় জন্য ভারমন্টের সিনেটর বার্নি স্যান্ডার্সের সমালোচনা করেন।

হিলারি বলেন, “যদি নয় বছর আগে অভিবাসন আইন সংস্কার প্রস্তাব পাস হতো, তবে আজ আমরা কোথায় থাকতাম তা কল্পনা করুন, একবার ভাবুন।”

জবাবে স্যান্ডার্স বলেন, নবাগত শ্রমিকদের সঙ্গে কি ধরনের আচরণ করা হবে তা নিয়ে তিনি ওই সময় খুবই উদ্বিগ্ন ছিলেন। তাছাড়া প্রস্তাবিত ওই প্রকল্প ছিল দাসত্বের শামিল।

তিনি আরও বলেন, ওই সময়ে অবৈধ অভিবাসীদের ড্রাইভিং লাইসেন্স দেওয়ার বিরোধিতা করেছিলেন হিলারি।

১৫ মার্চ ফ্লোরিডাসহ আরও কয়েকটি রাজ্যে প্রাইমারি অনুষ্ঠিত হবে। ফ্লোরিডায় প্রায় ১৮ লাখ হিস্পানিকের বাস। ১৫ মার্চের প্রাইমারিতে তাদের সমর্থন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

ফ্লোরিডার বিতর্কে দুই প্রতিদ্বন্দ্বী নতুন কর্মক্ষেত্র সৃষ্টি, শিক্ষা ও জলবায়ু পরিবর্তন নিয়েও কথা বলেন।

নিজেদের মধ্যে তীব্র বাকবিতণ্ডা হলেও দুজনই রিপাবলিকান দল থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী ডোনাল্ড ট্রাম্পকে আক্রমণ করেন।

হিলারি বলেন, “তার (ট্রাম্পের)কুসংস্কারাচ্ছন্ন ও পাগলের মত পরিকল্পনার কোনো স্থান আমাদের রাজনীতিতে নেই।”

স্যান্ডার্স বলেন, “আমার বিশ্বাস আমেরিকার জনগণ এমন কোনও প্রেসিডেন্টকে নির্বাচিত করবে না যিনি মেক্সিকানদের অপমান করেছেন, মুসলিমদের অপমান করেছেন, নারীদের এবং আফ্রিকান-আমেরিকানদের অপমান করেছেন।”

মঙ্গলবার সর্বশেষ প্রাইমারিতে মিশিগানে জিতেছেন স্যান্ডার্স। তবে মিসিসিপিতে বড় জয় পেয়ে নিজের আধিপত্য এখনও ধরে রেখেছেন হিলারি।

একইদিন রিপাবলিকানদের মধ্যে ট্রাম্প আরো তিনটি রাজ্যে (মিশিগান, মিসিসিপি ও হাওয়াই) জিতেছেন। টেড ক্রুজ শুধুমাত্র আইডাহোতে জিতেছেন। সূত্র: দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস।

/এমপি/

সম্পর্কিত

লাইভ

টপ