উড়োজাহাজ ভর্তি করতে ফ্রি টিকিট দিচ্ছে এয়ারএশিয়া!

Send
জার্নি ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৮:৩৫, মার্চ ১২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৫৭, মার্চ ১২, ২০২০

এয়ারএশিয়ার উড়োজাহাজকরোনা ভাইরাসের বিস্তারে আকাশপথে যাত্রী কমেছে। এমন পরিস্থিতিতে উড়োজাহাজ ভর্তির জন্য টিকিটে বিশাল মূল্যছাড় দিচ্ছে এয়ারএশিয়া। এমনকি বিনামূল্যে আসনের ব্যবস্থাও রেখেছে মালয়েশিয়া ভিত্তিক এই বাজেট এয়ারলাইন।

‘বিগ সেল’ শীর্ষক প্রচারণার অংশ হিসেবে বিভিন্ন গন্তব্যে ৬০ লাখ আসনের টিকিটে বিশাল মূল্যছাড় ঘোষণা করেছে এয়ারএশিয়া। এগুলো হলো অস্ট্রেলিয়া, থাইল্যান্ড, ইন্দোনেশিয়া ও সিঙ্গাপুর।

আগামী ১৫ মার্চ পর্যন্ত বিশেষ মূল্যছাড়ে টিকিট কেনা যাবে। এগুলোর মাধ্যমে ২০২১ সালের ১ জুলাই পর্যন্ত ভ্রমণ করতে পারবেন গ্রাহকরা।

এদিকে মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুর থেকে অভ্যন্তরীণ রুটে আসন ভরতে কোনও ভাড়া ছাড়াই যাত্রীদের ভ্রমণের সুযোগ দিচ্ছে এয়ারএশিয়া। এর মধ্যে আছে জোহর বাহরু, পেনাং, ল্যাংকাউই, আলোর সেতার এবং কোতা ভারু। শুধু কর ও যাত্রীসেবা চার্জ হিসেবে ১২ মালয়েশিয়ান রিঙ্গিত (২ দশমিক ৮৩ ডলার) দিলেই হবে।

এয়ারএশিয়ার আন্তর্জাতিক রুটে স্বল্প দূরত্বের গন্তব্যে ওয়ান-ওয়ে ফ্রি-আসন অফার দেওয়া হচ্ছে। এর সুবাদে ৪৪ মালয়েশিয়ান রিঙ্গিত (১০ দশমিক ৩৮ ডলার) দিয়ে কুয়ালালামপুর থেকে সিঙ্গাপুর, কম্বোডিয়ার রাজধানী নমপেন, ইন্দোনেশিয়ার জাকার্তা কিংবা থাইল্যান্ডের ফুকেটে যাওয়া যাবে।

দীর্ঘযাত্রার আন্তর্জাতিক রুটে নামমাত্র মূল্যে ফ্রি-সিট অফার রেখেছে এয়ারএশিয়া। এর অংশ হিসেবে কুয়ালালামপুর থেকে অস্ট্রেলিয়ার গোল্ড কোস্ট, পার্থ, মেলবোর্ন ও সিডনি, দক্ষিণ কোরিয়ার সিউল এবং তাইওয়ানের তাইপেই যাওয়ার ওয়ান-ওয়ে টিকিট মিলবে ৪৪ মালয়েশিয়ান রিঙ্গিতে (১৬ দশমিক ৭৬ ডলার)।

যারা একটু বেশি স্বাচ্ছন্দ্যে ভ্রমণ করতে চান তাদের জন্য এয়ারএশিয়ার প্রিমিয়াম ফ্ল্যাটবেড কেবিন পেতে বিগ সেল প্যাকেজের টিকিট রয়েছে। কুয়ালালামপুর থেকে ইন্দোনেশিয়ার বালি, জাপানের ওকিনাওয়া কিংবা ভারতের আহমেদাবাদে একবার যাওয়ার টিকিটের দাম এখন ৫৯৯ মালয়েশিয়ান রিঙ্গিত (১৪১ ডলার)।

ইন্দোনেশিয়ার ইংরেজি দৈনিক জাকার্তা পোস্টকে এয়ারএশিয়ার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) কারেন চ্যান বলেন, ‘এমন চ্যালেঞ্জিং সময়ে মানুষকে ভ্রমণে উৎসাহিত করতে এবং ইন্দোনেশিয়ার অর্থনৈতিক বৃদ্ধি বজায় রাখতে সহায়ক হবে এমন উপায় খুঁজে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।’

এয়ারপোর্টস কাউন্সিল ইন্টারন্যাশনাল (এসিআই) এশিয়া-প্যাসিফিকের তথ্যানুযায়ী, করোনা ভাইরাসের কারণে এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলে বছরের প্রথম প্রান্তিকে যাত্রী সংখ্যা ২৪ শতাংশ কমে গেছে। এ কারণে অঞ্চলটির ৩০০ কোটি মার্কিন ডলার রাজস্ব হ্রাস পাবে। তাই যেকোনও প্রকল্পের বাস্তবায়ন স্থবির হয়ে পড়বে।

তথ্যসূত্র: ডেইলি মেইল

/জেএইচ/
টপ
X